মৃদু শৈত্যপ্রবাহে সৈয়দপুরে মানুষের জীবনযাত্রা জুবুথুবু

মো: জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী)

মুদু শৈত্য প্রবাহে ও কনকনে হিমেল বাতাসে নীলফামারীর সৈয়দপুরে শীত জেগে বসেছে। এর প্রভাবে বিমান, ট্রেন ও বাস চলাচলে বিঘ্ন ঘটেছে।

গত ক’দিন ধরেই হিমেল বাতাসে তীব্র শীত অনুভূত হওয়ায় মানুষের জীবনযাত্রা জুবুথবু হয়ে পড়েছে। গোটা উপজেলায় দেখা দিয়েছে শীতজনিত রোগবালাই।

দিনে সূর্য না উঠায় শীতের প্রকোপ কমছে না। সন্ধ্যা থেকে দুপুর পর্যন্ত কুয়াশায় ঢেকে থাকছে গোটা জনপদ। গরম কাপড়ের অভাবে শীতে কষ্ট ভোগ করছে দুস্থ ও অভাবী কর্মজীবী মানুষ। দিনমজুর মানুষ কাজ করতে না পারায় মানবেতর দিন কাটাচ্ছে। শীতের দাপটে সন্ধ্যায় পর হাট-বাজারসহ শহরের কর্মচঞ্চল্য এলাকায় ফাঁকা হয়ে পড়েছে। গরম কাপড়ের অভাবে খড়কুটা জ্বালিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছেন নিম্নবিত্তরা।

শীতের সাথে কনকনে বাতাসের কারণে প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে কেউ বের হচ্ছে না। শীতের কারণে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো থাকছে ক্রেতাশূন্য। ঘন কুয়াশার কারণে দিনের বেলায় হেডলাইট জ্বালিয়ে যানবাহনকে সড়ক পথে চলাচল করতে হচ্ছে।

মাইক্রোচালক জিয়াউল হক জিয়া বলেন, ঘন কুয়াশার কারণে গাড়ি নিয়ে রাস্তায় নামলেই আতঙ্কেও মধ্যে পথ চলতে হচ্ছে। গাড়ির হেডলাইট জ্বালিয়েও সামনের দশ গজ দূরেও কিছু দেখা যাচ্ছে না।

স্থানীয় আবহাওয়া অফিস জানায়, সৈয়দপুরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৭.৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস। এই মৌসুমে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল এটি।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.