ads

ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের পথে হাটছে যুক্তরাষ্ট্র-ইসরাইল-সৌদি আরব : ফ্রান্স
ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের পথে হাটছে যুক্তরাষ্ট্র-ইসরাইল-সৌদি আরব : ফ্রান্স

ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের পথে হাটছে যুক্তরাষ্ট্র-ইসরাইল-সৌদি আরব : ফ্রান্স

রয়টার্স

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রন ইরান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, ইসরাইল ও সৌদি আরবের কড়া সমালোচনা করেছেন। তার অভিযোগ, ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ আরম্ভ করার পথে হাটছে এই তিন দেশ।এই দেশগুলো ইরানের ব্যাপারে যুদ্ধংদেহী অবস্থান নিয়েছে, বেশ কয়েক বছর ধরে আন্তর্জাতিকভাবে ইরানকে একঘরে করর চেষ্টা করছে।

ইম্যানুয়েল ম্যাক্রন হুশিঁয়ারি দিয়ে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইসরাইল ও সৌদি আরব, যারা বিভিন্নভাবেই আমাদের মিত্র, তাদের নেওয়া আনুষ্ঠানিক অবস্থান প্রায় নিশ্চিতভাবেই আমাদেরকে যুদ্ধের দিকে ধাবিত করবে। এই দেশগুলোর মধ্যে কেউ আবার উদ্দেশ্যমূলকভাবেই এমন কৌশল হাতে নিয়েছে।

ইরানে চলমান সরকার-বিরোধী বিক্ষোভ নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে ব্যপক আলোচনা চলছে। বিভিন্ন দেশের নেতারা এই বিক্ষোভ নিয়ে নিজ নিজ অবস্থান ব্যক্ত করেছে। এই ইস্যুতে তেহরানের সঙ্গে সংলাপের আহ্বান জানিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট।

 

যুক্তরাষ্ট্রের উল্টোপথে ফ্রান্স : ট্রাম্পের বিপক্ষে ম্যাক্রোঁ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা বাতিল করার চেষ্টা করছেন তখন ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই সমঝোতা বাস্তবায়নের জোর দাবি জানিয়েছে। ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এই সমঝোতা বাস্তবায়নের পক্ষে শক্ত অবস্থান নিয়েছেন।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ শিগগিরই তেহরান সফরে আসছেন বলে খবর দিয়েছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি। তিনি তেহরানে সাংবাদিকদের নিয়মিত ব্রিফিংয়ের সময় এ তথ্য জানান। কাসেমি বলেন, আগামী সপ্তাহে ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইরান সফর করবেন এবং তার পরপরই প্রেসিডেন্ট ম্যাকরনের সফর অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, ইরানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নারী সাংবাদিক নজানিন যাগারি আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ইরানের কারাগার থেকে মুক্তি পাবেন বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যমে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তাকে ভিত্তিহীন বলে মন্তব্য করেন কাসেমি।

তিনি বলেন, যাগারি ইরানি নাগরিক হিসেবে এদেশের আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন এবং তাকে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত কারাভোগ করতে হবে। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, তার দেশের বিচার বিভাগ সম্পূর্ণ স্বাধীন এবং আদালত যে শাস্তি ঘোষণা করেছে তা তার প্রাপ্য ছিল।

ইরানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নারী সাংবাদিক নজানিন যাগারি ইরান সফর করে ব্রিটেনে ফিরে যাওয়ার পথে ২০১৬ সালের ৩ এপ্রিল তেহরান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গ্রেফতার হন। পরে ইরানের ইসলামি সরকার বিরোধী প্রচারণা চালানোর দায়ে তেহরানের একটি আদালত তাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয়। ব্রিটিশ গণমাধ্যম দাবি করেছে, ‘থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন’র হয়ে কাজ করছিলেন যাগারি।

জেরুসালেমে দূতাবাস সরানোর পরিকল্পনা নেই : ফ্রান্স

ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিন-ইভেস লা দারিয়ান বলেছেন, ইসরাইলের তেল আবিব থেকে ফিলিস্তিনের পবিত্র নগরী জেরুসালেমে তার দেশের দূতাবাস সরানোর কোনো পরিকল্পনা নেই। শুক্রবার আরটিএল রেডিওকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা জানান।

জেরুসালেমকে ইসরাইলের রাজধানী স্বীকৃতি দিয়ে ট্রাম্পের ঘোষণা নিয়ে যখন বিশ্বব্যাপী সমালোচনার ঝড় উঠেছে তখন এ ধরনের কথা জানালেন ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। যদিও শুরু থেকেই ট্রাম্পের ওই ঘোষণার বিরোধী ফ্রান্স। তার দেশ ওই অঞ্চলে যেকোনো শান্তিপ্রক্রিয়ার পক্ষে বলেও উল্লেখ করেন দারিয়ান।

ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, আগামীকাল ১৮ ডিসেম্বর ওয়াশিংটন সফর করবেন দারিয়ান। সফরে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনের সাথে বৈঠক করবেন তিনি। বৈঠকে জেরুসালেম, সিরিয়া ও উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে আলোচনা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৬ ডিসেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুসালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন এবং তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুসালেমে সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেন। তার এ ঘোষণায় বিশ্বব্যাপী প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। বিশ্বনেতারা এর নিন্দা জানান। ট্রাম্পের ঘোষণার পরপরই ফিলিস্তিনের রামাল্লা, পশ্চিমতীর, বেথেলহেম ও গাজায় ইসরাইল ও ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়, যা এখনো অব্যাহত আছে। 

 

ads

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.