কখন শিশুকে মায়ের বুকের দুধ দেয়া যাবে না?
কখন শিশুকে মায়ের বুকের দুধ দেয়া যাবে না?

কখন শিশুকে মায়ের বুকের দুধ দেয়া যাবে না?

ডা: এস এম নওশের

জন্মের পর মায়ের বুকের দুধই শিশুর প্রধান খাদ্য হলেও এমন কিছু কিছু অবস্থা রয়েছে, যেখানে শিশুকে মায়ের বুকের দুধ দেয়া যাবে না। সেই অবস্থাগুলো কী কী আসুন আমরা জেনে নেই।

০১. মা যদি যক্ষ্মা, হৃদরোগ, কিডনি রোগ (ক্রনিক নেফ্রাইটিস), সেপ্টিসেমিয়া বা রক্ত দৃষ্টি রোগ, ব্রেস্ট এবসিস বা স্তনে পুঁজ জমা, ব্রেস্ট টিউমার বা স্তনে চাকা ইত্যাদি রোগে আক্রান্ত থাকেন, তাহলে তিনি শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানো থেকে বিরত থাকবেন। তা না হলে বুকের দুধের মাধ্যমে খুব সহজেই এসব রোগ শিশুর মধ্যে সংক্রামিক হতে পারে।

০২. মায়ের স্তনের বোঁটা যদি অভ্যন্তরমুখী অবস্থায় থাকে কিংবা বিদীর্ণ বা চির খাওয়া অবস্থায় তাকে, তাহলে এ অবস্থাতেও শিশুকে বুকের দুধ দেয়া যাবে না।

০৩. মায়ের যদি ক্যান্সার থাকে এবং এন্টিক্যান্সার ড্রাগ দিয়ে ডাক্তারের কাছে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকে তাহলে এ অবস্থায়ও তিনি স্তন্যদান থেকে বিরত থাকবেন।

০৪. মা যদি মারাত্মক ধরনের কোনো মানসিক রোগে আক্রান্ত থাকেন এবং এর ফলে তার নিজের উপর কোনো নিয়ন্ত্রণ না থাকে, তাহলে শিশুকে সেই মায়ের দুধ পান থেকে বিরত রাখা উচিত এবং তার জন্য বিকল্প ব্যবস্থা করা উচিত।

০৫. শিশুর কিছু কিছু রোগ যেমন- গ্যালাক্টোসেমিয়া, ফিনাইল কিটোন ইউরিয়া থাকলে শিশুকে বুকের দুধ দেয়া যাবে না।

০৬. শিশু নির্ধারিত সময়ের খুব বেশি আগে জন্ম নেয় এবং এর ফলে সে যদি খুব বেশি দুর্বল থাকে যে; মায়ের দুধ চুষতে পারছে না, তাহলে এ অবস্থায়ও শিশুকে বুকের দুধ দেয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.