বগুড়ায় ভরা মওসুমেও সবজির দাম বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে

আবুল কালাম আজাদ বগুড়া অফিস

বগুড়ায় সবজির ভরা মওসুমেও দাম বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। গত এক সপ্তাহে প্রতি কেজিতে বিভিন্ন সবজির দাম বেড়েছে ৫ থেকে ১০ টাকা। কিন্তু দাম বাড়ার কোনো সঠিক কারণ দেখছেন না ক্রেতারা।
বগুড়া শহরের রাজাবাজার, ফতেহ আলী, বকসিবাজারসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গতকাল প্রতিকেজি নতুন হলেনডার আলু ৩০ টাকা, পাকড়ি আলু ৩০ টাকা, হাগড়াই আলু ৪০ টাকা, বেগুন ৫০-৬০ টাকা, ফুলকপি ৩০-৩৫ টাকা, সিম ৪০-৫০ টাকা, টমেটো ৪০-৫০ টাকা, গাজর ৩০ টাকা থেকে ৪০ টাকা, মটরশুটি ১৬০ টাকা, করল্যা ৬০ টাকা, কাঁচামরিচ ৬০-৭০ টাকা, প্রতি পিস (লম্বা) লাউ ৪০-৫০ টাকা, মিষ্টি লাউ ৪০-৪৫ টাকা। অথচ এসব সবজি গত সপ্তাহে কেজিতে ৫-১০ টাকা বিক্রি হয়েছে। এ ছাড়া চাল, মুরগি, গরু ও খাসির গোশতের দামও বেড়েছে। গরুর গোশত ৪৫০-৪৭০ টাকা, খাসির গোশত ৬৫০- ৭০০ টাকা, ব্রয়লার মুরগি ১৩০-১৩৫ টাকা, লাল জাতের মুরগি ১৮০-১৯০ টাকা দরে বেচাকেনা হচ্ছে। তবে মাছের বাজারে কিছুটা স্বস্তি রয়েছে। প্রতি কেজি মোটা চাল (নতুন ) ৫০ টাকা পুরনো ৫৫ টাকা, চিকন চাল ৬০-৬৫ টাকা দরে বেচাকেনা হচ্ছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রতিটি পণ্যের দাম বাড়ার কারণে নি¤œ আয়ের মানুষের জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। সবজির দাম বাড়ার কারণ হিসেবে বকসিবাজারের খুচরা ব্যবসায়ী গোলাম হেসেন জানান, মালের সরবরাহ কম। তাই দাম চড়া।
বকসিবাজারের ক্রেতা সবুজ মিয়া বলেন, শীতকালে বাজারে সবজি বেশি। কিন্তু দাম বাড়ার কারণ নেই। এভাবে সাধারণ মানুষ কিভাবে জীবনযাপন করবে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.