জামালপুরের ইসলামপুরে ব্রহ্মপুত্রের চরে একটি ভুট্টার ক্ষেত  : নয়া দিগন্ত
জামালপুরের ইসলামপুরে ব্রহ্মপুত্রের চরে একটি ভুট্টার ক্ষেত : নয়া দিগন্ত

বন্যার ক্ষতি কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর আশা কৃষকের

ইসলামপুরের যমুনার চর জুড়ে ভুট্টার আবাদ
খাদেমুল হক বাবুল ইসলামপুর (জামালপুর)

জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার যমুনা ও ব্রহ্মপুত্র নদ-নদীর চরাঞ্চলে ভুট্টা চাষে তিন কোটি টাকা আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। দুই দফা বন্যার পর ভুট্টার বাম্পার ফলন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মধ্যে আশার আলো জাগিয়ে তুলেছে। উপজেলায় এ বছর গত বছরের চেয়ে তিন গুণ বেশি ভুট্টার আবাদ হয়েছে বলে জানা গেছে।
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চরাঞ্চলের কৃষকেরা বন্যার ব্যাপক ক্ষতি পুষিয়ে নিতেই স্বল্প সময়ের স্বল্প খরচে সহজ উপায়ে লাভজনক ফসল ভুটা চাষে ঝুঁকে পড়েছেন। এ বছর উপজেলায় এক হাজার ৪৫০ হেক্টর জমিতে ভুট্টার চাষ হয়েছে, যা গত বছরের চেয়ে তিন গুণ বেশি। বন্যায় বালু জমিতে পলিমাটির আবরণ পড়ায় ভুট্টার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।
কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ জানায়, ইসলামপুরে ভুট্টা উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা দিন দিন বেড়ে চলেছে। এক হাজার ৪৫০ হেক্টর জমিতে ২০ হাজার মেট্রিক টন ভুট্টা উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। যেসব জমিতে অন্য ফসল হয় না সেসব জমিতে মাত্র ১২০ দিন সময়ে অল্প ব্যয়ে এক বিঘার ৩০ হাজার টাকার ভুট্টা উৎপাদন করা সম্ভব হয়।
ভুট্টাচাষি আতাউর রহমান জানান, উপজেলা কৃষি অফিসের সার্বিক সহযোগিতায় চরাঞ্চলে ভুট্টা চাষ লাভজনক ফসলে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, ভুট্টা চাষে মাত্র একবার সেচ দিতে হয়। ক্ষেতে কোনো আগাছা না হওয়ায় শ্রমিকও কম লাগে। তাই ভুট্টা চাষে খরচ খুব কম।
আরেক ভুট্টাচাষি আবদুল মতিন বলেন, নদীর তীরবর্তী চরাঞ্চলের অনাবাদি বালু জমিতে ভুট্টা চাষ করে অসংখ্য কৃষক জীবন-জীবিকার পথ খুঁজে পেয়েছেন। অনেকে ভুট্টা চাষ করে বছরে লাখ লাখ টাকা আয় করে থাকেন।
স্থানীয় কৃষিবিদেরা জানান, নদীভাঙনে যেসব কৃষক ফসলি জমি হারিয়ে নিঃস্ব হয়েছিলেন ভুট্টা চাষ করে তারা আবারো স্বাবলম্বী হয়েছে উঠেছেন। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর ভুট্টা উৎপাদন অতীতের সব রেকর্ড অতিক্রম করার সম্ভাবনা রয়েছে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মতিয়ার রহমান জানান, এ বছর ২০ হাজার মেট্রিক টন উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এক হাজার ৪৫০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষ করা হয়েছে। এতে চরাঞ্চলের কৃষকদের তিন কোটি টাকারও বেশি আয় হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ভুট্টার সম্ভাবনাময় বাম্পার ফলন কৃষকদের বন্যার ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সাহায্য করবে।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.