বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে পারমিতা

অভি মঈনুদ্দীন

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন কলকাতার নায়িকা রোজা পারমিতা দে। ধ্রুব হাসানের নির্দেশনায় ‘দাহকাল’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। এরইমধ্যে ঢাকায় এসে তিনি পাবনায় প্রথম লটের শুটিং-এ অংশ নিয়েছেন।

কলকাতার বরেণ্য অভিনেতা উৎপল দত্ত’র ছাত্র সোহাগ সেন’র কাছে থিয়েটার ওয়ার্কশপে প্রায় দুই মাস অভিনয়ের নানান কৌশল সম্পর্কে জেনেছেন। এই ওয়ার্কশপ শেষেই পারমিতা রাজ চক্রবর্ত্তীও ‘কাঠমণ্ডু’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান। এরপর তিনি রাজেশ গাঙ্গুলীর নির্দেশনায় হিন্দি চলচ্চিত্র ‘ডার্টি হিরোজ’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। সর্বশেষ তিনি অভিনয় করেন কমলেশ্বর মুখার্জির ‘ককপিট’ চলচ্চিত্রে। ‘দাহকাল’ চলচ্চিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে রোজা পারমিতা দে বলেন,‘ যেহেতু আমি বাংলাদেশেরই মেয়ে , তাই বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সম্পর্কে আমার বেশ ভালো ধারণা আছে।

দাহকাল মুক্তিযুদ্ধের সময়কালের একটি চলচ্চিত্র। এতে আমি রেবা চরিত্রে অভিনয় করেছি। রেবা একজন মেডিক্যাল স্টুডেন্ট। সেই সময়ে একজন মেডিক্যাল স্টুডেন্ট কতোটা আধুনিক ছিলো তা আমার মধ্যে দেখা যাবে। রেবা খুব সাহসী এবং মেধাবীও বটে। কিন্তু খুব পজিটিভ। আমি চরিত্রটিতে বেশ আন্তরিকতা নিয়ে অভিনয় করছি। এরইমধ্যে সুনামগঞ্জে শুটিং হবার কথা ছিলো। কিন্তু তা আপাতত পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।’

পরবর্তী লট-এ ‘দাহকাল’র শুটিং আবার কবে হবে তা এখনো নির্ধারিত হয়নি। এর আগে রোজা পারমিতা দে ঢাকায় এসে তৌকীর আহমেদ, গৌতম কৈরী, গোলাম মুক্তাদির শানের নির্দেশনায় তিনটি নাটকে অভিনয় করেছিলেন। এবার অভিনয় করলেন চলচ্চিত্রে। উল্লেখ্য রোজা পারমিতা দে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শিল্পী সরকার অপু’র ছোট বোন অলি’র মেয়ে। ‘দাহকাল’ চলচ্চিত্র রোজা পারমিতা’র মায়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন শিল্পী সরকার অপু। ইস্ট ইন্ডিয়ার বড় পরিসরে আয়োজিত ‘গ্লাম হান্ট’ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন রোজা পারমিতা দে কলকাতার আরো কয়েকটি সুন্দরী প্রতিযোগিতায় শীর্ষস্থানে ছিলেন।

ধ্রুব হাসান নির্দেশিত ‘দাহকাল’ চলচ্চিত্রে রোজা পারমিতা দে’র সঙ্গে আরো অভিনয় করছেন লায়লা হাসান, তারিক আনাম খান, শতাব্দী ওয়াদুদ, এবিএম সুমন, সুমিত, ফারিন’সহ আরো অনেকে। কলকাতা ফিরে রোজা পারমিতা অনিক দত্তের নির্দেশনায় ‘ভবিষ্যতের ভূত’ চলচ্চিত্রের কাজ শুরু করবেন। 

ছবি : মোহসীন আহমেদ কাওছার

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.