আখেরি মোনাজাত
আখেরি মোনাজাত

আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে প্রথম পর্বের ইজতেমা সমাপ্ত

মোহাম্মদ আলী ঝিলন, গাজীপুর

আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ৫৩তম বিশ্ব এজতেমার প্রথম পর্ব। ভারতের মাওলানা সা'দ কান্ধলভিকে নিয়ে বিতর্ক ওঠায় এবার তার পরিবর্তে বাংলাদেশের কাকরাইল মসজিদের ইমাম হযরত মাওলানা যোবায়ের হাসান বাংলা ভাষায় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন।
আজ রোববার বেলা পৌনে ১১টায় আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। মুসল্লিরা প্রায় ৩৫ মিনিটের এই মোনাজাতে আল্লার দরবারে দু’হাত তুলে ফরিয়াদ জানান। মোনাজাতে ময়দান ও আশপাশের সড়কগুলোতে অবস্থান নেন লাখো মুসল্লি।
চারদিন বিরতি দিয়ে আগামী শুক্রবার শুরু হবে তিন দিনের বিশ্ব এজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। এবারও বিশ্ব এজতেমার অন্যতম আকর্ষণ যৌতুকবিহীন বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়নি।

এবারে টঙ্গীর বিশ্ব এজতেমায় ভারতের মাওলানা সাদ কান্ধলভি অংশ নিতে পারেন নি। ভারতের মাওলানা সাদ কান্ধলভি গত বুধবার বাংলাদেশে এলেও তাকে নিয়ে বিতর্ক ওঠায় টঙ্গীর বিশ্ব এজতেমায় অংশ না নিয়েই শনিবার দুপুরে বাংলাদেশ থেকে ফিরে গেছেন। 

ভারতের মাওলানা জোবায়রুল হাসান মারা যাওয়ার পর তিনিই (মাওলানা সাদ) বিশ্ব এজতেমায় তার হাল ধরেছিলেন। বিশ্ব এজতেমায় উর্দুতে বয়ান করা ছাড়াও তিনি একই ভাষায় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করতেন।জানা গেছে, প্রায় ১০০বছর আগে ইসলামের দাওয়াতি কাজকে ত্বরান্বিত করতে মাওলানা ইলিয়াছ শাহ (রহ.) দিল্লীর নিজামুদ্দিন মসজিদ থেকে তাবলিগের কাজ শুরু করেন। মাওলানা ইলিয়াছের (রহ.) ছেলে মাওলানা হারুন (রহ.)। তারই ছেলে হলে মাওলানা সাদ কান্ধলভী। 

২০১৫ সাল থেকে মাওলানা সাদ আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করে আসছেন। এরআগে তিনি টঙ্গীর বিশ্ব এজতেমা ময়দানে শুধু তাবলিগের বয়ান দিতেন।

বিশ্ব এজতেমা আগামী বছর শুরু হবে ১১ জানুয়ারি। শুক্রবার রাতে কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ মুরুব্বিদের এক পরামর্শ সভায় ওই তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

বিশ্ব এজতেমার মুরুব্বি মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, তাবলীগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বিদের সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী বিশ্ব এজতেমার প্রথম পর্ব ১১, ১২ ও ১৩ জানুয়ারি এবং চারদিন বিরতি দিয়ে দ্বিতীয় পর্ব ১৮, ১৯ ও ২০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.