আমতলীর ইউপি চেয়ারম্যান ফের সাময়িক বরখাস্ত

বরগুনা সংবাদদাতা

বরগুনার আমতলী উপজেলার আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ কে এম নুরুল হক তালুকদারকে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় আবারো সাময়িক বরখাস্ত করেছে। গত বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মাহাবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ সাময়িক বরখাস্তের আদেশ দেয়া হয়েছে।
জানা গেছে, উপজেলার আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নে ২০১৬ সালের ২২ মার্চ ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে এ কে এম নুরুল তালুকদার ও তার লোকজন ২১ মার্চ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হুমায়ূন কবিরের কর্মী-সমর্থকদের মারধর করে।
এ ঘটনায় এ কে এম নুরুল হক তালুকদারকে প্রধান আসামি করে ৪১ জনের নামে হুমায়ূন কবিরের বড় ভাই সুলতান আহম্মেদ বাদি হয়ে মামলা করেন। গত বছর ২২ মার্চ পুলিশ চেয়ারম্যান এ কে এম নুরুল হক তালুকদারসহ ১১ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এ মামলায় চেয়ারম্যান দীর্ঘ দিন আদালতে হাজির হয়নি। গত বছর ৩০ নভেম্বর আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালতের বিচারক হুমায়ূন কবির তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠান।
আদালত পুলিশের চার্জশিট গ্রহণ করায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ধারা ৩৪ উপধারা (১) অনুযায়ী তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। উল্লেখ্য, গত বছর ৫ মার্চ স্থানীয় সরকার বিভাগ অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছিল।
সাময়িক বরখাস্তকৃত আড়পাঙ্গাশিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এ কে এম নুরুল হক তালুকদার মুঠোফোনে বলেন, আমি বুধবার জেল থেকে বের হয়েছি। সাময়িক বরখাস্তের কোনো চিঠি পাইনি।
এ বিষয়ে আমতলী উপজেলা নির্বাহীকর্মকর্তা সরোয়ার হোসেন বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান এ কে এম নুরুল হক তালুকদারকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সাময়িক বরখাস্তের চিঠি পেয়েছি।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.