বাকেরগঞ্জের কলসকাঠিতে ফসলি জমিতে ইটভাটা

বাকেরগঞ্জ (বরিশাল) সংবাদদাতা

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার কলসকাঠি ইউনিয়নের পূর্ব বাগদিয়া গ্রামে উর্বর ফসলি জমিতে গড়ে উঠেছে একটি ইটভাটা। ঘনবসতি এলাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কাছাকাছি এ ভাটাটি নিয়ে স্থানীয় প্রান্তিককৃষকসহ সব শ্রেণী-পেশার মানুষের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। ভাটায় সরকারি নিয়মের তোয়াক্কা না করে কয়লার বদলে পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। সূত্র মতে, পরিবেশ আইন অনুযায়ী উর্বর ও আবাদি জমিতে কোনোভাবেই ভাটা স্থাপন করা যাবে না। পরিবেশ বিপন্ন তথা জনমানুষের অকল্যাণ না হয় এমন সামগ্রিক বিষয় বিবেচনায় রেখে জেলা প্রশাসক ইটভাটার লাইসেন্স প্রদান করার কথা। তবে ইটভাটা নির্মাণের সাথে সংশ্লিষ্টরা পরিবেশগত ছাড়পত্র পেয়েছে বলে জানিয়েছেন।
সরেজমিন দেখা যায়, ওই গ্রামের চারপাশে বিশাল ফসলের মাঠ। যত দূর চোখ যায় শুধু ধানক্ষেত। ওই ইটভাটার ইট ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী আনা-নেয়ার জন্য ফসলি জমি ও নতুন রাস্তা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ধানক্ষেত কেটে প্রস্তুত করা হয়েছে ইট তৈরির মাঠ। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা জানান, ভাটা এলাকার জমিতে বছরে দুইবার চাষাবাদ হতো, এখন ইটভাটা হওয়ায় তা সম্ভব হচ্ছে না।
এ ব্যাপারে পরিবেশ অধিদফতরের উপপরিচালক রাসেদুল ইসলাম জানান, ছাড়পত্র ছাড়া কোনো ইটভাটা নির্মিত হলে মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.