ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদরাসা ছাত্রাবাসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নামফলক ভাঙচুর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুসিয়া মাদরাসার ‘তাজুল ইসলাম ছাত্রাবাসের’ ভিত্তিফলক ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা।
গত শনিবার গভীর রাতে শহরের কান্দিপাড়া এলাকায় জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুসিয়া মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা মরহুম ফখরে বাঙ্গাল তাজুল ইসলামের (রহ:) নামে নতুন ছাত্রাবাসের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের জন্য তৈরি করা ফলকটি ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়। কে বা কারা এই নামফলকটি ভাঙচুর করেছে তা নিশ্চিত করে বলতে পারছে না কেউ।
মাদরাসা সূত্রে জানা গেছে, শনিবার বিকেলে ছাত্রাবাসটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুসিয়া মাদরাসায় আসেন স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। সেখানে মন্ত্রী ফখরে বাঙ্গাল তাজুল ইসলামের (রহ:) কবর জিয়ারত করে মাদরাসার অফিসে কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনায় বসেন। স্থানীয় কিছু লোকজন ছাত্রাবাসের জায়গা নিয়ে বিরোধ রয়েছে বলে আপত্তি করলে মন্ত্রী ছাত্রাবাসের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন না করেই জেলা ঈদগাহ্ মাঠে আয়োজিত জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুসিয়া মাদরাসার ১০৫তম ইসলামি মহাসম্মেলনে যোগ দেন।
জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুসিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ মুফিত মুবারকুল্লাহ্ সাংবাদিকদের বলেন, কে বা কারা এমপি সাহেবের কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেছেন যে ছাত্রাবাসের ভূমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে।
এমপি মন্ত্রীকে বলেছেন, ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন না করতে। পরে মন্ত্রী বলেছেন ওই বিরোধ নিষ্পত্তি করার পরই তিনি এসে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে যাবেন। তবে আমরা মন্ত্রীকে বলেছি এই জায়গা আমাদের, কাগজপত্র সবকিছুই তাকে দেখিয়েছি। যারা রাতের আঁধারে এ কাজ করেছে তারা অন্যায় করেছে। আমরা ঘটনার তদন্ত করে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.