হাতিয়ায় আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ : ৩ জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ৮

নোয়াখালী সংবাদদাতা

নোয়াখালীর বিচ্ছিন্নদ্বীপ হাতিয়ায় আ’লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে গতকাল বুধবার পৃথক দু’টি সংঘর্ষে তিনজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত আটজন আহত হয়েছে। এ সময় ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।
জানা যায় বেলা ১১টায় হাতিয়া পৌরসভার ব্রিকফিল্ড এলাকায় আ’লীগ নেতা ও স্থানীয় চর ইশ্বরের চেয়ারম্যান আবদুল হালিম আজাদ শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে স্থানীয় এমপির আয়েশা ফেরদৌসের বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় এমপি সমর্থকেরা এমপির বাড়ি থেকে গুলি বর্ষণ করে। এ সময় আজাদ চেয়ারম্যান সমর্থকেরা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেন। এ সময় উভয় গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে এবং ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এতে আবু তাহের (৫৫), রাকিব (২২) ও করিম (৩২) গুলিবিদ্ধ হয়। তিনি আরো জানান, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে যাওয়ার সময় এমপির সমর্থকেরা প্রকাশ্য গুলি চালায়। তিনি আরো বলেন, নিরাপত্তার অভাবে আহতদের হাসপাতালে নেয়া যায়নি এবং স্থানীয় চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসা করানো হয়। এ দিকে একই উপজেলার সোনাদিয়া ইউপির চর চেংড়া বাজারে আ’লীগের মোহাম্মদ আলী সমর্থিত কর্মীরা আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ আ’লীগ নেতা নুরুল ইসলাম চেয়ারম্যানের সমর্থক জামাল (৩০), খোকন (২৭), রুবেল (২৮) ও সুমনসহ (৩২) পাঁচজনকে বেপরোয়া কুপিয়ে আহত করে। সোনাদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জানান, মোহাম্মদ আলীর সমর্থকেরা তার দলের নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। হাতিয়া থানার ওসি কামরুজ্জামান শিকদার জানান, আজাদ চেয়ারম্যান সমর্থকেরা এমপির বাড়ি লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। তিনি আরো বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যান অভিযোগ করার পরে পুলিশ পাঠানো হয়। কিন্তু সেখানে গিয়ে এবং হাসপাতালে আহতদের পাওয়া যায়নি।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.