ফেব্রুয়ারিতে দুর্ঘটনায় দিনে নিহত ১৫

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেব্রুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় দৈনিক গড়ে ১৫ জন নিহত এবং ৩৬ জন আহত হয়েছেন। এক মাসে প্রতিদিন দুর্ঘটনা ঘটেছে গড়ে ১৩টি। এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে রেল দুর্ঘটনায় ২২ জন ও নৌ দুর্ঘটনায় সাতজনের প্রাণহানি ঘটেছে। বেসরকারি সংগঠন নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির (এনসিপিএসআরআর) নিয়মিত মাসিক জরিপ ও পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।
আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সংগঠনটি তাদের প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ২২টি বাংলা ও ইংরেজি জাতীয় দৈনিক, ১০টি আঞ্চলিক সংবাদপত্র এবং আটটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও সংবাদ সংস্থার তথ্যের ভিত্তিতে এই পরিসংখ্যান তৈরি করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।
প্রতিবেদনে বলা হয়, গত মাসে সারা দেশে ৩৭৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৩ নারী ও ৪৮ শিশুসহ ৪১৩ জন নিহত এবং ৪৬ নারী ও ১৯ শিশুসহ ৯৯৫ জন আহত হয়েছেন। ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিভিন্ন সড়ক, মহাসড়ক, জাতীয় সড়ক ও আঞ্চলিক সড়কে এসব প্রাণঘাতি দুর্ঘটনা ঘটে।
একই সময়ে রেলপথে ৩১টি দুর্ঘটনায় পাঁচ নারীসহ ২২ জন নিহত এবং এক নারীসহ ৮০ জন আহত হয়েছেন। এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে নৌপথে ছয়টি দুর্ঘটনায় এক নারী ও তিন শিশুসহ সাতজনের প্রাণহানি ঘটেছে। এসব দুর্ঘটনায় আরো সাতজন আহত হয়েছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।
জাতীয় কমিটির পর্যবেক্ষণে বলা হয়, ফেব্রুয়ারিতে সংঘটিত প্রাণঘাতি সড়ক দুর্ঘটনাগুলোর অধিকাংশই ঘটেছে বাস ও ট্রাকসহ বিভিন্ন ধরনের ভারি যানবাহনের চালকদের অসতর্কতা ও খামখেয়ালিপনার কারণে। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোর যথাযথ নজরদারির অভাব রয়েছে। এছাড়া সড়ক ও মহাসড়কে ক্ষুদ্র যানবাহনের সংখ্যা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি, সকল টার্মিনালসহ বিভিন্ন পর্যায়ে চাঁদাবাজি ও শ্রমিক অসন্তোষসহ সড়ক পরিবহন খাতে বিরাজমান বিশৃঙ্খল পরিস্থিতিও দুর্ঘটনা বৃদ্ধির অন্যতম কারণ বলে পর্যবেক্ষণে উল্লেখ করা হয়।
এছাড়া অনেক স্থানে রেলক্রসিংগুলোতে যথাযথ তদারকি ও নিরাপত্তার ঘাটতি রয়েছে উল্লেখ করে পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে বিভিন্ন রেলপথে দুর্ঘটনার জন্য রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও দায়িত্বহীনতাকে দায়ী করা হয়। একইভাবে নৌনিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে নিয়ন্ত্রক সংস্থা নৌ পরিবহন অধিদপ্তর ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) গৃহিত পদক্ষেপসমূহ পর্যাপ্ত নয় বলে জাতীয় কমিটির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.