বসন্তের অনন্ত ডাক

মোশাররফ হোসেন খান

বসন্ত আসে বারবার
এক ঝাঁক কোকিলের তারস্বরে
লালে লাল ফুলের বাগিচা
রক্তবর্ণে সেজে ওঠে কৃষ্ণচূড়ার ডাল
হৃদয়েও বয়ে যায় বসন্তের কোমল হাওয়া।

এমনি মনমাতানো কালে কে আর
শুনতে চায় কাকের কর্কশ ধ্বনি?

তবু শুনতে হয় বটে!
এ যেন ললাটে লেখা এক অনিবার্য ভাগ্যলিপি।

এত যে বসন্তের আয়োজন
তাও যেন ফিকে হয়ে যায় নির্মম কালের দহনে।

আহ! আর একবার যদি বসন্ত বলতো হেসে...
এইতো আছি তোমার বুকের ভেতর!

কত কাল হলো...
কোকিলের কণ্ঠ আর শুনি না
কত কাল কেটে গেল বসন্তের সেই আপন করা
ডাক আর শুনি না!

হৃদয়ের ব্যাকুলতা শোনানোর জন্য এখন আর
একটি নদীকেও খুঁজে পাই না।

তবে কি থেমেই গেল বসন্তের ডাক
তার সেই আবহমান আহ্বান?

আজ আর কাকে জিজ্ঞেস করবো,
কে আছে প্রকৃতির এমন মিত্র?
চুপচাপ বসে ভাবি ত্রিকালের ত্রিভুজ চিত্র।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.