জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, চুয়াডাঙ্গায় বিভিন্ন পদে নিয়োগ

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, চুয়াডাঙ্গা ও এর অধীন অফিসগুলোতে (সাধারণ ও রাজস্ব প্রশাসনে) নি¤œবর্ণিত শূন্য পদে অস্থায়ী ভিত্তিতে জনবল নিয়োগের লক্ষ্যে চুয়াডাঙ্গা জেলার স্থায়ী বাসিন্দাদের কাছ থেকে জনপ্রশাসন
মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রবর্তিত নির্ধারিত ফরমে আবেদনপত্র আহ্বান করা হয়েছে। অনলাইনে আবেদনপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ : ২৭ মার্চ ২০১৮, রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। লিখেছেন মাহমুদ কবীর
সাধারণ প্রশাসন :
পদের নাম : সাঁট-মুদ্রাক্ষরিক কাম-কম্পিউটার অপারেটর।
পদের সংখ্যা : ১টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : স্বীকৃত যেকোনো শিক্ষা বোর্ড থেকে এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস। সাঁটলিপি লিখনের গতি মিনিটে বাংলায় ৪৫ ও ইংরেজিতে ৭০ শব্দ এবং কম্পিউটার ব্যবহারের ক্ষেত্রে ডড়ৎফ চৎড়পবংংরহম/ উধঃধ ঊহঃৎু ও ঞুঢ়রহম-এ সর্বনি¤œ গতি প্রতি মিনিটে কম্পিউটার লিখনে বাংলায় ২৫ ও ইংরেজিতে ৩০ শব্দের গতি থাকতে হবে।
বেতন স্কেল : ১০২০০-২৪৬৮০/-
পদের নাম : সার্টিফিকেট সহকারী।
পদের সংখ্যা : ১টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস।
বেতন স্কেল : ৯৩০০-২২৪৯০/-
রাজস্ব প্রশাসন :
পদের নাম : নাজির কাম ক্যাশিয়ার।
পদের সংখ্যা : ১টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস।
বেতন স্কেল : ৯৩০০-২২৪৯০/-
পদের নাম : অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক।
পদের সংখ্যা : ৪টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস। কম্পিটউটার ব্যবহারের ক্ষেত্রে ডড়ৎফ চৎড়পবংংরহম/ উধঃধ ঊহঃৎু ও ঞুঢ়রহম-এ সর্বনি¤œ গতি প্রতি মিনিটে কম্পিউটার লিখনে বাংলায় ২০ শব্দ ও ইংরেজিতে ২০ শব্দের গতি থাকতে হবে।
বেতন স্কেল : ৯৩০০-২২৪৯০/-
পদের নাম : সার্টিফিকেট পেশকার।
পদের সংখ্যা : ৪টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস।
বেতন স্কেল : ৯৩০০-২২৪৯০/-
পদের নাম : সার্টিফিকেট সহকারী।
পদের সংখ্যা : ৪টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস।
বেতন স্কেল : ৯৩০০-২২৪৯০/-
পদের নাম : ক্রেডিট চেকিং কাম-সায়রাত সহকারী।
পদের সংখ্যা : ৪টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস।
বেতন স্কেল : ৯৩০০-২২৪৯০/-
পদের নাম : মিউটেশন কাম-সার্টিফিকেট সহকারী।
পদের সংখ্যা : ৪টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস।
বেতন স্কেল : ৯৩০০-২২৪৯০/-
পদের নাম : ট্রেসার।
পদের সংখ্যা : ১টি (স্থায়ী রাজস্ব)।
আবেদনের যোগ্যতা : ড্রইংসহ এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাস।
বেতন স্কেল : ৯৩০০-২২৪৯০/-
জেনে রাখুন : প্রার্থীকে অবশ্যই জন্মসূত্রে বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক ও চুয়াডাঙ্গা জেলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
বয়সসীমা : প্রার্থীর বয়সসীমা ২৭ মার্চ ২০১৮ তারিখে ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান বা সন্তানের সন্তান বা প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা ৩২ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য।
আবেদনপ্রক্রিয়া : আগ্রহী প্রার্থীকে অনলাইনে দরখাস্ত করতে হবে। এজন্য যঃঃঢ়://ফপ.ঃবষবঃধষশ. পড়স.নফ ও যঃঃঢ়: //িি.িপযঁধফধহমধ.মড়া.নফ ওয়েবসাইটে লগইন করলে একটি লিংক পাওয়া যাবে। ওই লিংকে প্রবেশ করে সংশ্লিষ্ট নির্দেশনা মোতাবেক ঙহষরহব-এ আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে। আবেদনপত্রে প্রার্থী তার স্বাক্ষর (দৈর্ঘ্য ৩০০ ´ প্রস্থ ৮০ চরীবষ) এবং রঙিন ছবি (দৈর্ঘ্য ৩০০ ´ প্রস্থ ৩০০ ঢ়রীবষ) স্ক্যান করে নির্ধারিত স্থানে টঢ়ষড়ধফ করবেন। ঙহষরহব-এ আবেদনপত্র পূরণ শেষে ঝঁনসরঃ করার আগে অবশ্যই ভালোভাবে পড়ে নিতে হবে। চূড়ান্তভাবে ঝঁনসরঃ করার পর অঢ়ঢ়ষরপধহঃ ঈড়ঢ়ু প্রিন্ট করে নিতে হবে। আবেদন ফি জমা দেয়ার পর অঢ়ঢ়ষরপধঃরড়হ ঋড়ৎস কোনো অবস্থাতেই সংশোধন বা প্রত্যাহার করা যাবে না। সঠিকভাবে পূরণকৃত অঢ়ঢ়ষরপধহঃ পড়ঢ়ু থেকে প্রাপ্ত টংবৎ ওউ দিয়ে আবেদন ফি জমা দিতে হবে। অতঃপর ঝগঝ-এর মাধ্যমে আবেদনকারীকে একটি টংবৎ ওউ এবং চধংংড়িৎফ দেয়া হবে, যা সব সময়ের জন্য সংরক্ষণ করতে হবে।
অনলাইনে আবেদনপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ : ২৭ মার্চ ২০১৮, রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। শুধু টংবৎ ওউ প্রাপ্ত প্রার্থীগণ ওই সময়ের পরবর্তী ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত ঝগঝ-এর মাধ্যমে পরীক্ষার ফি জমা দিতে পারবেন। অনলাইনে আবেদনপত্র জমা দেয়ার পর অবশ্যই ঝগঝ-এর মাধ্যমে ফি জমা দিতে হবে। ফি জমা দেয়ার পরই কেবল আবেদনটি চূড়ান্তভাবে গৃহীত হয়েছে বলে গণ্য হবে।
আবেদনপত্র সংগ্রহ : পরবর্তী সময়ে লিখিত পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করার পর প্রত্যেক যোগ্য আবেদনকারীকে ঝগঝ-এর মাধ্যমে জানানো হবে। তিনি উপর্যুক্ত ওয়েবসাইটের লিংক ব্যবহার করে পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন। দরখাস্তকারী চুয়াডাঙ্গা জেলার স্থায়ী বাসিন্দা হওয়ায় তার প্রার্থিতা জেলার প্রাপ্য কোটার অনুকূলে নির্ধারিত থাকবে এবং নিয়োগসংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম তদানুযায়ী নিয়ন্ত্রিত হবে।
পরীক্ষার ফি : প্রার্থীকে পরীক্ষার ফি বাবদ ১০০ টাকা এবং টেলিটকের সার্ভিস চার্জ বাবদ ১২ টাকাসহ মোট ১১২ টাকা যেকোনো টেলিটক মোবাইল নম্বর থেকে ঝগঝ-এর মাধ্যমে প্রেরণ করতে হবে।
প্রবেশপত্র প্রাপ্তি : প্রবেশপত্র প্রাপ্তির বিষয়টি যঃঃঢ়://ফপ.ঃবষবঃধষশ.পড়স.নফ ওয়েবসাইটে এবং প্রার্থীর মোবাইল ফোনে ঝগঝ-এর মাধ্যমে (শুধু যোগ্য প্রার্থীদের) যথাসময়ে জানানো হবে। ঙহষরহব আবেদনপত্রে প্রার্থীর প্রদত্ত মোবাইল ফোনে পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় যোগাযোগ সম্পন্ন করা হবে তাই ওই নম্বরটি সার্বক্ষণিক সচল রাখা, ঝগঝ পড়া এবং প্রাপ্ত নির্দেশনা তাৎক্ষণিকভাবে অনুসরণ করতে হবে। ঝগঝ-এ প্রেরিত টংবৎ ওউ এবং চধংংড়িৎফ ব্যবহার করে পরবর্তী সময়ে রোল নম্বর, পদের নাম, ছবি, পরীক্ষার তারিখ, সময় ও স্থান (কেন্দ্রের নাম) ইত্যাদি তথ্য সংবলিত প্রবেশপত্র প্রার্থী উড়হিষড়ধফপূর্বক রঙিন চৎরহঃ করে নেবেন। প্রার্থী প্রবেশপত্রটি লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সময়ে এবং উত্তীর্ণ হলে ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষার সময় দেখাবেন।
মৌখিক পরীক্ষার সময় যেসব সনদপত্রের মূলকপি সাথে আনতে হবে : (ক) শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কিত সব মূল/সাময়িক সনদপত্র, অভিজ্ঞতা সনদ (যদি থাকে)-এর কপি; (খ) সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান/ পৌরসভার মেয়র কর্তৃক প্রদত্ত নাগরিক সনদপত্র; (গ) মুক্তিযোদ্ধা কোটার আবেদনকারীর ক্ষেত্রে সরকারের সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুসারে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রদত্ত মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের পিতা/ মাতা অথবা পিতা/ মাতার পিতা/ মাতা-এর মুক্তিযোদ্ধা সনদপত্র;
(ঘ) প্রার্থীর সাথে মুক্তিযোদ্ধার সম্পর্ক উল্লেখপূর্বক ন্যূনতম নবম গ্রেডের সরকারি কর্মকর্তা অথবা সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ, চেয়ারম্যান/ পৌরসভার মেয়র কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়নপত্র; (ঙ) এতিম প্রার্থীর ক্ষেত্রে সমাজসেবা অধিদফতর কর্তৃক রেজিস্ট্রিকৃত এতিমখানা/ শিশুসদন কর্তৃক প্রদত্ত সনদপত্র;
(চ) প্রতিবন্ধী প্রার্থীর ক্ষেত্রে উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত সনদপত্র; (ছ) আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্য প্রার্থীদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট প্রার্থী আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যÑ এ মর্মে জেলা কমান্ড্যান্ট আনসার ও ভিডিপি কর্তৃক প্রদত্ত সনদপত্র; (জ) উপজাতীয় প্রার্থীদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা/জেলা প্রশাসক দফতর কর্তৃক প্রদত্ত উপজাতীয় পরিচয়বিষয়ক সনদপত্র; (ঝ) ডাউনলোডকৃত অঢ়ঢ়ষরপধহঃ পড়ঢ়ু-এর সত্যায়িত কপি; (ঞ) লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি; (ট) সাঁটলিপি ও কম্পিউটার টাইপিংয়ের প্রমাণস্বরূপ সব সনদপত্র।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.