১৮ মার্চের মধ্যে দাবি পূরণ না হলে বিসিসির সব স্থানে বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহ বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা

বরিশাল ব্যুরো

বরিশাল সিটি করপোরেশন-বিসিসির আন্দোলনরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বকেয়া বেতনভাতা পরিশোধ, ২২ মাসের প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা জমা, দৈনিক মজুরিভিত্তিক শ্রমিকদের বকেয়া বেতন এক সাথে পরিশোধসহ ৯ দফা দাবি পূরণ করা না হলে আগামী ১৮ মার্চ থেকে নগরীর সব স্থানে বিদ্যুৎ, পানি ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাকাজ বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা করা হয়েছে।
গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ হুমকি প্রদান করেন বরিশাল সিটি করপোরেশনের আন্দোলনরত বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদের নগরভবন শাখার সাধারণ সম্পাদক দীপকলাল মৃধা। নগরভবনের তৃতীয় তলার সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সমাজ উন্নয়ন কর্মকর্তা রাসেল খান, অ্যাসোসর কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন, অহিদুল ইসলাম মুরাদ, এ কে এম হেলাল উদ্দিন, নুরু খান, রেজাউল করীম, শানু জমাদ্দার, জিয়া উদ্দিনসহ স্থায়ী ও দৈনিক মজুরিভিত্তিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।
সংবাদ সম্মেলনে আরো উল্লেখ করা হয়, ইতঃপূর্বে মেয়র আহসান হাবীব কামালের প্রতিনিধি কাউন্সিলর আলতাফ মাহমুদ সিকদার, জাকির হোসেন জেলাল, আকতারুজ্জামান হিরু, মজিবুর রহমান, ইউনুস মিয়া, সংরক্ষিত কাউন্সিলর কামরুন নাহার রোজি, কোহিনুর বেগম ও রেশমি বেগমের সাথে আন্দোলনরত বিসিসির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের এক সমঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে ১২ মার্চের মধ্যে স্থায়ী কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দুই মাসের বকেয়া বেতন ও তিনটি পিএফ প্রদান করাসহ ৯টি বিষয়ের ওপর সমঝোতা আলোচনা করা হয়। কিন্তু ওই সমঝোতা সিদ্ধান্তের স্মারকে মেয়র স্বাক্ষর করতে অপারগতা প্রকাশ করায় সমঝোতা আলোচনা নিষ্ফল হয়ে যায়।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা আরো বলেন, গত ২২ দিন ধরে আমরা সকাল ৯টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালনের মাধ্যমে শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করে গেলেও মেয়রের টনক নড়েনি। তাই বাধ্য হয়ে আগামী ১৪ মার্চ থেকে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালনসহ নগরভবনের সব শাখায় তালা ঝুলিয়ে দেয়া হবে এবং ১৮ মার্চ থেকে নগরীর সব স্থানের পানি, বিদ্যুৎ ও নগর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা সেবা বন্ধ করে দেয়া হবে।
গত ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে আন্দোলন শুরুর পর কয়েক দিন মেয়র, নির্বাহী কর্মকর্তা, সচিবসহ কাউন্সিলররা নগরভবনে এলেও কয়েক দিন থেকে তারা নগরভবনে আসা ছেড়ে দিয়েছেন। ফলে নগরভবন এক প্রকার অভিভাবকহীন হয়ে আছে।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.