২৩ প্রতিবন্ধীর সাক্ষাৎকার সিলেট চেম্বারে

সিলেট ব্যুরো

বাংলাদেশের প্রতিবন্ধীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে তাদের উন্নয়নের মূলধারায় নিয়ে আসতে দ্য সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে গত রোববার বিকেলে চেম্বার কার্যালয়ে এক সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে সিলেট বিভাগের বিভিন্ন উপজেলা থেকে কর্মক্ষম ও আগ্রহী ২৩ জন প্রতিবন্ধী অংশগ্রহণ করেন। এ সময় সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, অনেক প্রতিভাবান প্রতিবন্ধী রয়েছেন যারা মনোবল ও আত্মবিশ্বাসকে পুঁজি করে লেখাপড়া ও বিভিন্ন প্রশিক্ষণগ্রহণ করে নিজেদের যোগ্য করে গড়ে তুলেছেন। কিন্তু সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি ও সুযোগ-সুবিধার অভাবে অর্জিত জ্ঞানকে কাজে লাগাতে বাধাগ্রস্ত হচ্ছেন। কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা গেলে এসব প্রতিবন্ধীকেও দেশের উন্নয়নের মূলধারায় সংযুক্ত করা সম্ভব হবে। তিনি বলেন, কর্মক্ষম প্রতিবন্ধীদের যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরিপ্রাপ্তির জন্য সিলেট চেম্বার প্রতিবন্ধীদের জীবনবৃত্তান্ত, যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতাসংক্রান্ত তথ্যাবলি সংগ্রহ করেছে। তিনি সামাজিক দায়বদ্ধতা ও মানবিক দিক বিবেচনা করে কর্মক্ষম ও আগ্রহী প্রতিবন্ধীদের চাকরি প্রদানের জন্য চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠানকে অনুরোধ জানান। সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহসভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, সহসভাপতি মো: এমদাদ হোসেন, পরিচালক মুশফিক জায়গীরদার, হুমায়ুন আহমেদ, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক নিবাসরঞ্জন দাশ, সিলেট টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার মো: সাইদুর রহমান, সিলেট বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুরাইয়া নাসরীন, গোল্ডেন হারভেস্টের নির্বাহী পরিচালক মঈনুল ইসলাম চৌধুরী, ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের ব্যবস্থাপক মো: তসলিম উদ্দিন চৌধুরী ও গ্রিন ডিজেবল্ড ফাউন্ডেশনের ম্যানেজার স্বপন মাহমুদ। এ ছাড়া গোল্ডেন হারভেস্ট ফুডস লিমিটেড, আলীম ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, রোজভিউ হোটেল, ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস, গ্রিন ডিজেবল্ড ফাউন্ডেশন, হাজী মজনু মিয়া সিএনজি ফিলিং স্টেশন, রূপশ্রী বিউটি পার্লারসহ আরো বিভিন্ন চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.