উশুতে রাজিয়ার প্রথম স্বর্ণপদক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

জাজ টেবিল থেকে সময় সমাপ্তির সিগন্যালের পর নিজেকে বিশ্বাস করতে পারছিলেন না রংপুর বিভাগের উশু প্রতিযোগী রাজিয়া সুলতানা রানী। এমনিতে ফুটবলার হয়ে পরিচিত পেলেও ভালো লাগা থেকেই উশুতে আসা। আর প্রথমবার এসে যুব গেমসের মতো বড় আসরে উশুর সান্দা ইভেন্টে ৫৫ কেজিতে প্রথম স্বর্ণটিই পেলেন রাজিয়া। উচ্ছ্বাসের মাত্রা তাতেই বেড়ে যায় বহুগুণ।
রাজিয়ার কথায়, ‘ভাবতেও পারিনি স্বর্ণ জিতব। তবে প্রতিপক্ষকে ছেড়ে কথা বলিনি। কাউন্টার অ্যাটাক শব্দটি ফুটবলে ব্যাপক পরিচিত। সেটিই কাজে লাগালাম নিয়ম মেনে। সর্বশক্তি দিয়েই রুখলাম এবং নিজের আক্রমণাত্মক পজিশনকে কাজে লাগালাম। আমি অনেক আনন্দিত। আমার মা বেঁচে থাকলে অন্তহীন খুশি হতেন। পদকটি উৎসর্গ করতে চাই রেহানা স্পোর্টস অ্যাকাডেমিকে। যারা আমাকে নতুন জীবন দিয়েছে। অ্যাকাডেমির হয়ে আমি আরো অনেক বেশি পদক জিততে চাই।’
রেহানা স্পোর্টস অ্যাকাডেমির কর্ণধার রেহানা পারভীন জানালেন, ‘যুব গেমসের মহিলা ফুটবলে কুড়িগ্রাম চ্যাম্পিয়ন হলেও চূড়ান্ত পর্বে মহিলা ফুটবলকে বাদ দেয়ায় প্রতিভাবান রাজিয়াকে উশুতে খেলানোর সিদ্ধান্ত নিই। মেয়েরা বুঝিয়ে দিয়েছে ফুটবল ডিসিপ্লিনে খেলার সুযোগ পেলে তারা আরো ভালো করত।’

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.