গাজীপুরের বিপসটে সেনাবাহিনীর ‘অনুশীলন শান্তিদূত-৪’ এর সমাপ্তি

গাজীপুর সংবাদদাতা

গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসে বিশ্বের ২২টি দেশের সেনাবাহিনীর অংশগ্রহণে ‘অনুশীলন শান্তিদূত-৪’ সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিকবিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর ড. গরহর রিজভী গতকাল এ অনুশীলনের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণা করেন। রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিংয়ের (বিপসট) প্যারেড গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত ওই সমাপনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক এবং ইউএস পলিটিক্যাল মিলিটারি অ্যাফ্যায়ার্স ব্যুরোর গ্লোবাল প্রোগ্রাম অ্যান্ড ইনিশিয়েটিভের পরিচালক মাইকেল এল স্মিথ বক্তব্য রাখেন। এ সময় বিপসটের কমান্ডেন্ট মেজর জেনারেল মো: এনায়েত উল্লাহ উপস্থিত ছিলেন।
গত ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিংয়ে (বিপসট) ‘অনুশীলন শান্তিদূত-৪’ প্রশিক্ষণ শুরু হয়। জাতিসঙ্ঘ শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত শান্তিরক্ষীদের কৌশলগত দক্ষতা বৃদ্ধি করাই শান্তিদূত-৪-এর উদ্দেশ্য। দুই সপ্তাহব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কার্যক্রমে বাংলাদেশ, ইউএসএ, যুক্তরাজ্য, দক্ষিণ কোরিয়া, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, কম্বোডিয়া, ফিজি, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কাসহ বিশে^র ২২টি দেশের এক হাজার ৩১৯ জন অংশগ্রহণ করেন। অনুশীলন ফিল্ড ট্রেনিং ইভেন্ট (এফটিই), স্টাফ ট্রেনিং ইভেন্ট (এসটিই) এবং ক্রিটিক্যাল এনাবেলার ক্যাপাবিলিটি এনহান্সমেন্টে (২সিই) তিনটি ভাগে একই সময়ে পরিচালিত হয়। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণার্থীদের সমাপনী কুচকাওয়াজ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করা হয়।
‘অনুশীলন শান্তিদূত-৪’ এর মাধ্যমে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে আঞ্চলিক বন্ধন, নিরাপত্তা ও শান্তিরক্ষা কার্যক্রম বহুলাংশে বৃদ্ধি পাবে। ফিল্ড ট্রেনিং ইভেন্ট প্রশিক্ষণে বিভিন্ন ধরনের লেইন ট্রেনিংয়ের পাশাপাশি শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বাস্তবধর্মী পরিস্থিতির আলোকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। বিপসটের মাধ্যমে প্রদানকৃত উন্নত প্রশিক্ষণ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে ভূমিকা পালনে অন্যতম সহায়ক হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।
‘অনুশীলন শান্তিদূত-৪’ জাতিসঙ্ঘ শান্তিরক্ষা মিশনের ওপর পরিচালিত একটি বহুজাতিক অনুশীলন, যা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও ইউএস প্যাসিফিক কমান্ড (ইউএসপ্যাকম) কর্তৃক যৌথভাবে আয়োজিত গ্লোবাল পিস অপারেশনস ইনিশিয়েটিভের (জিপিওআই) পৃষ্ঠপোষকতায় শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের ওপর পরিচালিত বহুজাতিক অনুশীলন। এই অনুশীলনটি ইউএস প্যাসিফিক কমান্ড দ্বারা পরিচালিত মাল্টি ন্যাশনাল পিস কিপিং ইভেন্ট (এমপিই), যা প্রতি বছর এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের বিভিন্ন দেশে পরিচালিত হচ্ছে। ইতঃপূর্বে বিপসটে ২০০২, ২০০৮ ও ২০১২ সালে একই ধরনের অনুশীলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
অনুষ্ঠানে সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দেশের উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। দুই সপ্তাহব্যাপী এই অনুশীলন সোমবার সমাপ্ত হয়।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.