নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় রাগীব-রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজের ১৩ শিক্ষার্থী হতাহত

ক্যাম্পাসে শোকের ছায়া : তিন দিনের শোক পালনের কর্মসূচি
সিলেট ব্যুরো
নেপালে ইউএস বাংলার বিমান দুর্ঘটনায় সিলেটের জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজের ১৩ শিক্ষার্থী হতাহত হয়েছেন। তারা সবাই নেপালি বংশোদ্ভূত। তাদের মধ্যে দুইজন ছেলে ও ১১ জন মেয়ে শিক্ষার্থী। হতাহতরা হলেনÑ সঞ্জয় পাউডাল, সঞ্জয়া মেহেরজান, নিগা মেহেরজান, অঞ্জলি শ্রেষ্ঠ, পূর্ণিমা লুনানি, শ্বেতা থাপা, মিলি মেহেরজান, সারুনা শ্রেষ্ঠ, আলজিনা বড়াল, চারু বড়াল, আশনা সাকিয়া, প্রিন্সি ধামি ও সামিরা বায়ানজানকর।
এ দিকে, নেপালি ১৩ ছাত্রছাত্রী বিমান দুর্ঘটনায় হতাহত হওয়ার ঘটনায় জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজ ক্যাম্পাসে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শোকে স্তব্ধ হয়ে পড়েছেন কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। মৃত্যুর খবর পেয়ে শিক্ষার্থীদের অনেকেই কান্নায় ভেঙে পড়েন। শিকেরাও ছিলেন বিমর্ষ। কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী সুধিতা বাড়াল ও ক্রিতি কুসুম বলেন, ওই ১৩ শিক্ষার্থীর মধ্যে কয়েকজন তাদের রুমমেট ছিলেন। হতাহতের ঘটনায় ইতোমধ্যেই তিন দিনের শোক পালনের ঘোষণা দিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। সব ধরনের কাস-পরীক্ষা বন্ধ করে কলেজের পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। কলেজের প্রিন্সিপাল আবেদ হোসেন জানান, হতাহতরা সবাই ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা শেষ করে নিজেদের দেশ নেপালে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন। তিনি বলেন, চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা শেষে ফলাফল প্রকাশের জন্য দুই মাসের মতো সময় লাগে। এই সময়ে সবাই নিজেদের বাড়িতে চলে যান। তিনি জানান, রাগীব রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজের বিদেশী শিক্ষার্থীর ৯৫ ভাগই নেপালি। ইতোমধ্যে প্রায় ৩০০ শিক্ষার্থী এখান থেকে মেডিক্যাল ডিগ্রি অর্জন করেছেন। বর্তমানে এই মেডিক্যাল কলেজটিতে নেপালের ২৫০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত।
এ দিকে, নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজের নেপালি ছাত্রছাত্রীসহ বিমান যাত্রী যারা নিহত হয়েছেন তাদের রুহের শান্তি কামনা এবং তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে শোক প্রকাশ করেছেন জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান রাগীব আলী।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.