ধেয়ে আসছে অক্ষি
ধেয়ে আসছে অক্ষি

ধেয়ে আসছে অক্ষি! আতঙ্কে কাঁপছে কেরালা

নয়া দিগন্ত অনলাইন

মাত্র তিন মাস আগে কেরালার উপকূল অঞ্চলকে লণ্ডভণ্ড করে বয়ে যায় সাইক্লোন অক্ষি। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে এবার আগেভাগেই হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে কেরালায়। গত দুই দিন ধরে আরব সাগরের উপর তৈরি হওয়া নিম্নচাপ গভীরতর হওয়ায়, সাইক্লোনের অশনিসঙ্কেত দেখছেন আবহাওয়াবিদরা।

মঙ্গলবার আবহাওয়া দফতর কেরালার মৎস্যজীবীদের সতর্ক করে জানিয়েছে, তিরুবনন্তপুরমের ৩৯০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে গভীর নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে। মঙ্গলবার তা আরো গভীরতর হয়েছে। ফলে, আগামী দু-দিন মৎস্যজীবীদের গভীর সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। রাজ্যে জারি হয়েছে হাই অ্যালার্ট।

কেরালার মুখ্যসচিব পল অ্যান্টনি দুর্যোগ মোকাবেলা বিষয়ে বিভাগীয় প্রধানদের সাথে গতকাল আলোচনা করেন। বিভিন্ন দফতরের প্রস্তুতি পর্যালোচনা করা হয়। দুটি কন্ট্রোল রুম খোলার পাশাপাশি উপকূলরক্ষী বাহিনীকেও প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে।

 

কাশ্মিরের অর্থমন্ত্রী বরখাস্ত

বিতর্কিত মন্তব্য করার দায়ে ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মিরের অর্থমন্ত্রী হাসিব দ্রাবুকে বরখাস্ত করা হয়েছে। সোমবার মেহবুবা মন্ত্রিপরিষদ থেকে দ্রাবুকে বরখাস্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার পর তা গভর্নর এন এন ভোরাকে জানিয়ে দেয়া হয়। গভর্নর তাতে প্রয়োজনীয় অনুমোদন দিতেই বরখাস্ত হন দ্রাবু। সম্প্রতি নয়াদিল্লিতে এক অনুষ্ঠানে পিডিপি নেতা হাসিব দ্রাবু বলেন, কাশ্মির রাজনৈতিক বিষয় নয় বরং এটি সামাজিক সমস্যা।

দলীয় লাইনের বিপরীতে মন্তব্য করায় পিডিপি সহসভাপতি মুহাম্মদ সরতাজ মাদানি হাসিব দ্রাবুকে এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা দিতে বলেন। তিনি বলেন, পিডিপি মনে করে জম্মু-কাশ্মির রাজনৈতিক ইস্যু এবং কেবল তা সংলাপের মাধ্যমে সমাধান সম্ভব। দ্রাবু মূল ইস্যুতে দলীয় অবস্থানের বিপরীত বিবৃতি দিয়েছেন।

পিডিপি নেতা হাসিব দ্রাবুর মন্তব্যের পর রাজনৈতিক অঙ্গনে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। বিরোধী ন্যাশনাল কনফারেন্স ও সিপিআই (এম) দ্রাবুর মন্তব্যকে কেন্দ্র করে সরকারকে চেপে ধরার চেষ্টা করছে।

বিরোধীদের দাবি, হাসিব দ্রাবুর মন্তব্যে সরকারের উদ্দেশ্য স্পষ্ট হয়ে গেছে, সরকার রাজ্যে শান্তি চায় না। হাসিব দ্রাবুর বরখাস্তের ঘোষণায় রাজ্যে পিডিপি-বিজেপি জোটের মধ্যে টানাপড়েন সৃষ্টি হতে পারে বলে বিশ্লেষকেরা মনে করছেন। দ্রাবুকে বিজেপিঘনিষ্ঠ বলে মনে করা হয়। জম্মু-কাশ্মিরে পিডিপি-বিজেপি জোট সরকার গঠনে তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। ওই ঘটনায় বিজেপির শীর্ষনেতারা পুরো বিষয় অবগত হতে দলটির রাজ্য নেতাদের দিল্লিতে তলব করেছেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.