এখনো জেলে যাওয়ার শঙ্কা কাটেনি সালমানের
এখনো জেলে যাওয়ার শঙ্কা কাটেনি সালমানের

এখনো জেলে যাওয়ার শঙ্কা কাটেনি সালমানের

নয়া দিগন্ত অনলাইন

কৃষ্ণাসার হরিণ শিকার মামলায় এখনো জেলে যাওয়ার শঙ্কা কাটেনে বলিউড অভিনেতা সালমান খানের। ২০ বছর আগের এই মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে গত ৫ এপ্রিল জেলে ঢোকার পর ২ দিন ছিলেন সেখানে সালমান খান। জামিন পেয়েই ফিরেছেন নিজের ঘরে। পরদিন গিয়েছিলেন একটি এনজিওতে শিশুদের সাথে সময় কাটাতে। এরপর রেস থ্রি’র অভিনেতা সাকিব সেলিমের জন্মদিনের পার্টিতে ছিলেন সারারাত।

এরইমধ্যে ঘটে যাচ্ছে নতুন ঘটনা। আবারও তাকে জেলে ঢোকানোর জন্য রাজস্থানের তোড়জোড় শুরু করেছে বিষ্ণুই সম্প্রদায়। সালমানের জামিনের বিরোধিতা করে হাইকোর্টে আবেদন করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে তারা। সালমানের জামিনে বলিউড তথা সাড়া বিশ্বে তার ভক্তরা খুশি হলেও, বিষ্ণুই সম্প্রদায়ের কেউই এটা মেনে নিতে পারেননি। তাদের প্রতিনিধিরা বলছেন- আমরা এটা মেনে নিব না। আমরা আবার হাইকোর্টে যাব। সালমানকে শাস্তি পেতেই হবে!

তারা এও মনে করছেন, সালমান জামিন পাওয়ায় তাদের এতদিনের আইনি লড়াইয়ের কোনো মূল্য থাকল না। সে কারণেই সালমানকে জেলে ফেরাতে উচ্চআদালতে আবেদন করতে চলেছেন তারা।

বিষ্ণুই টাইগার ফোর্স সংগঠনের নেতা রামনিবাস ধোরি বলেছেন- ‘এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখের সময়। পাঁচ বছরের সাজা হওয়ার পরে মাত্র দু’দিন জেলে থেকেই জামিন পেয়ে গেলেন সালমান।’

বিষ্ণুইদের অন্য একটি সংগঠনের নেতা রণনিবাস বুধনাগরও জানিয়েছেন, সালমানের জামিনের নির্দেশ ভাল করে খতিয়ে দেখছেন তারা। আইনি পরামর্শ নেয়ার পর তারা উচ্চতর আদালতে জামিনের বিরোধিতা করে আবেদন জানাবেন।

তিনি জানিয়েছেন ‘শুধু সালমানের জামিনের বিরোধিতা নয়, চার অভিনেতাসহ এই মামলায় অব্যাহতি পাওয়া বাকি পাঁচজনের শাস্তির দাবিতেও উচ্চ আদালতে আবেদন জানাব আমরা।’

১৯৯৮ সালে সালমানসহ সাইফ, সোনালি, নীলম, টাবু একসঙ্গে অভিনয় করছিলেন সুরুজ বারজাতিয়া পরিচালিত ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির। শুটিংয়ের মধ্যে একদিন প্যাক আপের পর সালমানের সঙ্গে শিকারে বেরিয়েছিলেন তারা। শোনা যায় সেদিন গুলি করে বিরল প্রজাতির কৃষ্ণসার হরিণ শিকার করেছিলেন এই তারকারা। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, হরিণের উপর গুলি চালানোর জন্য নায়িকা টাবুই নাকি সালমানকে উস্কানি দিয়েছিলেন। অন্য একটি সূত্রে জানা গেছে হয়ত সালমান নন, এই ৪ তারকার মধ্যেই কেউ একজন গুলি করেছিলেন। কিন্তু সালমান খান নিজের উপরই শাস্তি নিচ্ছেন। অন্যদেরকে বাঁচাতে তিনি নিজেই আইনি লড়াই করছেন।

এক সময়ের জনপ্রিয় উপস্থাপক সিমি গারেওয়ালের একটি টুইটে এই নিয়ে আরো জল্পনা শুরু হয়েছে। সিমি পরশু তার এক টুইটে লিখেছেন, ‘সালমানকে আমি চিনি আজ বহুবছর। সোনার জন্যই সে কাজ করে, সবাইকে সাহায্য করে। চুপচাপ মানুষের জন্য ভালো কাজ করা মানুষ সে। সালমান এরকম কাজ করতেই পারেন না। আমি নিশ্চিত অন্য কোনো তারকাকে বাঁচাতে সালমান নিজেই কেস লড়ছেন।’

সালমানের সাথেই , সাইফ আলি খান, সোনালী বেন্দ্রে, টাবু এবং নীলম এই মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন। কিন্তু সেদিন তাদেরকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছিল আদালত। আর সালমানকে ৫ বছরের কারাদন্ড দিয়েছিলেন। তারই জামিনে বেড়িয়েছেন সালমান খান।

এখন যদি আবার বিষ্ণুই সম্প্রদায় হাইকোর্টে যায়, তাহলে হয়ত আবারও সালমান খানকে জেলে যেতে হতে পারে। যেটা তার ভক্তরা শুনেই আঁতকে উঠেছেন। বলিউডও নড়েচড়ে বসছেন সবাই। কারণ ১০০০ কোটি টাকার উপরে লগ্নী হয়ে আছে সালমানের উপর।

নতুন ছবি রেস থ্রি, দাবাং থ্রি, ভরত, টিভি শো দশ কা দম- সব আটকে যাবে তাহলে।

এই যেমন এখন রেস থ্রি’র শুটিংয়ে সালমানের থাকার কথা ছিল দুবাইয়ে, কিন্তু আদালত তার দেশের বাইরে যাওয়া নিয়ে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছেন। তাই নিরুপায় হয়ে রেস থ্রি ছবির সেই শুটিং এখন মুম্বাইয়ের ফিল্ম সিটিতে সেট ফেলে করা হচ্ছে।

সালমান খান মুক্ত থেকে ভক্তদের মুখের হাসিটা ধরে রাখবেন, ঈদে রেস থ্রি মুক্তি পাবে- এই আশাই করছে এখন পুরো বলিউড। তারা কেউই চান না তাদের প্রিয় সালমান খান আবার জেলে যান।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.