ঘুষ দিতে গিয়ে চাক‌রিপ্রার্থী আটক
ঘুষ দিতে গিয়ে চাক‌রিপ্রার্থী আটক

ঘুষ দিতে গিয়ে চাক‌রিপ্রার্থী আটক

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতি‌বেদক

বিশ্ববিদ্যাল‌য়ের ভি‌সি‌কে ঘুষ দি‌তে গি‌য়ে আটক হ‌য়ে‌ছেন চাক‌রিপ্রার্থী এক যুবক। এ সময় ৯ লাখ টাকার ব্যাগসহ তা‌কে আটক করা হয়। রোববার সকা‌লে ঢাকা বিশ্ববিদ্যাল‌য়ে‌র (ঢা‌বি) কলাভব‌নে এ ঘটনা ঘ‌টে।

অভিযুক্ত ইলিয়াস হোসেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এক ছাত্র। তার বাড়ি পাবনা জেলার সুজানগর থানার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামে।

জানা যায়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যাল‌য়ের ভি‌সি ও ঢা‌বির বাংলা বিভা‌গের অধ্যাপক ড. বিশ্বজিত ঘোষ‌কে কলাভব‌নের অফিস ক‌ক্ষে এসে ঘুষ দেয়ার চেষ্টা ক‌রেন ওই যুবক। এ সময় তা‌কে ধ‌রে থানায় সোপর্দ করা হয়।

প্রক্টর অফিস সূত্রে জানা যায়, অধ্যাপক বিশ্বজিৎ ঘোষকে চাকরির জন্য ঘুষ দিতে চান ইলিয়াস হোসেন। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন পদে নিয়োগের জন্য সার্কুলার দেয়া হলে ইলিয়াস তিনটি ‘অফিসার পদে’ আবেদন করেন। সেখানে তার নিয়োগ নিশ্চিত করতে এই ঘুষ দেয়ার চেষ্টা করেন।

বিশ্ববিদ্যালযের সহকারী প্রক্টর মো. আবদুর রহিম জানান, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির টেবিলে ৯ লাখ টাকার একটি ব্যাগ রেখে পালিয়ে যেতে চায় অভিযুক্ত ইলিয়াস। খবর পেয়ে কলা ভবনের গেটের দারোয়ানেরা গেট বন্ধ করে ওই যুবককে ধরে ফেলে। ব্যাগ চেক করে ৯ লাখ টাকা পাওয়া যায়। পরে প্রক্টরিয়াল টিমের মাধমে তাকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. গোলাম রব্বানী বলেন, বিষয়টি আমি প্রক্টরিয়াল টিমের মাধ্যমে অবহিত হয়েছি। যেহেতু বিষয়টি অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সংশ্লিষ্ট তাই আমরা অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার হাতে তুলে দিয়েছি।

এ বিষয়ে জানার জন্য শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি থানার বাইরে আছি। বিষয়টি আমার কনসার্নে নেই।

এসআই পুলিশ সাহেব আলী জানান, আটক ব্যক্তি শাহবাগ থানায় আছে। তার বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

এ বিষ‌য়ে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভি‌সি অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন, একটা ছেলে আমাকে ঘুষ দিতে আসছিল। পরে ছাত্রদের সহায়তায় তাকে আটক করে থানায় দেয়া হয়। এখন বিষয়টির তদন্ত চলছে। তদন্তের পর সবকিছু জানা যাবে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.