শিবপুরে মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে যুবলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন

শিবপুর (নরসিংদী) সংবাদদাতা

নরসিংদীর শিবপুরে মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে রোববার উপজেলার বাজনাব বাসস্ট্যান্ডে সংবাদ সম্মেলন করেছেন শিবপুর পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ বিল্লাল হোসেন শেখ। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, শিবপুর উপজেলার বাজনাব গ্রামের মোঃ সবুজ সরকারের বড় ছেলে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মোঃ শকিব হাসান সৌরভের মা মোসাঃ পারভীন আক্তার আমাকেসহ ৭ জনকে আসামি করে শিবপুর মডেল থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার অন্য আসামিরা হলেন মোঃ রবিন মিয়া, বাবু মিয়া, শাকিল মিয়া, আরিফ হোসেন, মাহফুজ মিয়া ও বেলায়েত হোসেন।

মামলার এজাহারে জানা যায়, সৌরভের কাছে মটরবাইক চাইলে না দেয়ায় পূর্বশত্রুতার জের ধরে আমরা আসামিরা পরস্পর যোগসাজসে সৌরভকে গত ৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে সৌরভের মটর সাইকেলসহ কয়েকটি মটরসাইকেলে ইটাখোলায় নিয়া যাই। সেখানে তাকে নেশাজাতীয় দ্রব্য পান করিয়ে অপহরণ করে ভৈরব মাহমুদাবাদ ব্রীজের উপর নিয়া সৌরভকে হত্যার উদ্দেশ্যে অস্ত্র, লোহার রড, ধারালো ছুরি দিয়ে গুরুতর জখম করি বলে উল্লেখ করা হয়।

বিল্লাল বলেন, এ অভিযোগ সম্পূর্ন মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। প্রকৃতপক্ষে সৌরভ গত ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিন বন্ধুদের জোর করে নিয়ে ভৈরব ঘুরতে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে ভৈরব মাহমুদাবাদ ব্রীজের কাছে এনা পরিবহন গাড়ির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মটর সাইকেলের পিছনে বসা রবিন ও মাহফুজ ছিটকে পড়ে যায়। কিন্তু সৌরভ গাড়ির নিচে চাপা পড়ে। সে কারণে সৌরভ মারাত্মক জখম হয়। আহত অবস্থায় সৌরভকে মাহফুজ ভৈরব হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। অথচ সড়ক দুর্ঘটনাকে হত্যার অভিযোগ এনে মিথ্যা মামলা করা হয়। ফলে এই মামলায় আমাকে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ইটাখোলায় আমার ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান থেকে গ্রেফতার করা হয়। আমাকে কী কারণে আসামি করা হয়েছে তা আদৌ জানতে পারিনি। আমি দীর্ঘ ১ মাস ১০ দিন জেল খেটে বের হই। ফলে আমি মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে চাই।

তিনি বলেন, সৌরভ সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে সে মর্মে, স্থানীয় নেতৃবৃন্দের কাছ থেকে আর্থিক সহযোগিতা নেন তার মা। তাছাড়া সৌরভের মা পারভীন আক্তার উপজেলা পরিষদ থেকে চিকিৎসার জন্য নগদ ১০ হাজার টাকা অনুদানও নেন। ওই আবেদনেও সড়ক দুর্ঘটনার কথা লেখা হয়েছে। এমনকি হাসপাতালের ভর্তি রেজিস্টারেও সড়ক দুর্ঘটনায় আহত লেখা রয়েছে। আমি শিবপুর পৌর আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ব্যবসায়ী। এই মিথ্যা মামলার কারণে আমার ভাবমূর্তি ও সুনাম ক্ষুন্ন হয়েছে। এমনকি আমি বর্তমানে শারিরী ভাবেও এখন অসুস্থ হয়ে পড়েছি। আমাকে অবিলম্বে মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শিবপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে বশির আহমেদ বাবলুসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের নেতৃবৃন্দ।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.