মঠবাড়িয়ায় চাচাকে কুপিয়ে হত্যা

পিরোজপুর সংবাদদাতা

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আব্দুল লতিফ ঘরামি নামে সাবেক এক ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার ভাতিজা আল আমিন। এ সময় লতিফ ঘরামির সাথে থাকা তার চাচাত ভাই ইদ্রিস ঘরামিকেও কুপিয়ে মারাত্মক আহত করেছে আল আমিন ও তার সহযোগীরা।
মঠবাড়িয়া থানার ওসি গোলাম সরোয়ার জানান, রোববার সকাল ৬টার দিকে মঠবাড়িয়া সদর ইউনিয়নের বখসির ঘটিচোরা গ্রামের বাসিন্দা মঠবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার আব্দুল লতিফ ঘরামি তার চাচাত ভাই ইদ্রিস ঘরামিকে নিয়ে পিরোজপুরে আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে যাচ্ছিলেন। তারা আন্দারমানিক গ্রামের তুলাতলা এলাকায় পৌঁছলে সেখানে সাত-আটজন লোক নিয়ে ওঁৎ পেতে থাকা আল আমিন দেশীয় অস্ত্রসহ লাঠিসোঁটা নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। আব্দুল হক চৌকিদারের নেতৃত্বে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে প্রথমে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে যাওয়ার পথে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আব্দুল লতিফ ঘরামির মৃত্যু হয়। আহত ইদ্রিস ঘরামিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ওসি জানিয়েছেন নিহত আব্দুল লতিফ ঘরামি মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে। তার আপন ভাই আব্দুল করিম ঘরামির সাথে জমিজমা নিয়ে একাধিক মামলা রয়েছে।
এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান এএসপি (মঠবাড়িয়া সার্কেল) হাসান মোস্তফা স্বপন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.