ads

পারিবারিক কলহে ৬ জনের মৃত্যু

নয়া দিগন্ত ডেস্ক

বগুড়ার ধুনটে স্বামীর ঘর থেকে দুই সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সুনামগঞ্জের ছাতকে যৌতুক না দেয়ায় গৃহবধূর মুখে বিষ ঢেলে হত্যা করা হয়েছে। বগুড়ার শেরপুরে পারিবারিক কলহের জেরে দুইজন আত্মহত্যা করেছেন। বরিশালের আগৈলঝাড়ায় এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার সয়াধানগড়া মধ্যপাড়া মহল্লায় এক গৃহবধূকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
বগুড়া অফিস জনায়, বগুড়ার ধুনট উপজেলায় স্বামীর ঘর থেকে মহিমা খাতুন (২৮) নামে দুই সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মহিমা উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী। ধুনট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফারুকুল ইসলাম জানান, প্রায় ১০ বছর আগে নজরুল ইসলামের সাথে মহিমা খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক বিভিন্ন বিয়য়াদি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ চলছিল। গত শুক্রবার বিকেলে মহিমাকে মারধর করে নজরুল ইসলাম বাজারে যান। রাত ৯টায় নজরুল বাড়ি ফিরে এসে শয়ন ঘরে মহিমার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান।
ছাতক (সুনামগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, ছাতকে যৌতুক না দেয়ায় গৃহবধূ সুজিতা বেগমের (৩০) মুখে বিষ ঢেলে হত্যা করা হয়েছে। স্থানীয়রা জানায়, গত রোববার ভোরে স্বামীসহ পরিবারের লোকজন তাকে নির্যাতন করলে তিনি গুরুতর আহত হন। সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার বেলা ২টায় তিনি মারা যান। সুজিতা উপজেলার সিংচাপইড় ইউপির বড় সৈদেরগাঁও গ্রামের আবদুল জলিলের স্ত্রী।
শেরপুর (বগুড়া) সংবাদদাতা জানান, বগুড়ার শেরপুরের পারিবারিক কলহের জেরে গত দুই দিনে আঞ্জুয়ারা খাতুন (৩৫) ও আফছার আলী (৩৬) নামে দুইজন আত্মহত্যা করেছেন। উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের ছাতিয়ানী গ্রামের মৃত মোসলেম উদ্দিনের মেয়ে আঞ্জুয়ারা খাতুনের সাথে একই গ্রামের ফিদিল হোসেনের ছেলের হায়দার আলীর প্রায় ১৮ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে হায়দার আলী ঘরজামাই হিসেবে বসবাস করতেন। হায়দার আলীর তেমন আয় না থাকায় তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায় বাড়িতে কেউ না থাকায় নিজের ঘরের তীরের সাথে নাইলনের রশি গলায় লাগিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। অপর দিকে খামারকান্দি ইউনিয়নের পারভবানীপুর জান্নাতপাড়া গ্রামের মৃত নজির উদ্দিনের ছেলে আফছার আলী পারিবারিক কলহের জের ধরে গত রোববার দুপুর ১২টায় গ্যাসের ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেন।
আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতা জানান, বরিশালের আগৈলঝাড়ায় এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উপজেলার আন্দারমানিক গ্রামের চিত্ত রঞ্জন সরকারের মেয়ে রূপালী বাড়ৈর সাথে নবগ্রামের প্রতিবন্ধী মিলন বাড়ৈর দুই মাস আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া লেগেই থাকত। গতকাল সকালে বাবার বাড়ির পাশের জমিতে কীটনাশক পান করে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পরলে রূপালীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রূপালী মারা যান।
সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার সয়াধানগড়া মধ্যপাড়া মহল্লায় সীমা খাতুন (২২) নামে এক গৃহবধূকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার বেলা ১১টায় এ ঘটনা ঘটে। সীমা খাতুন ওই মহল্লার খবির উদ্দিনের মেয়ে। স্থানীয়রা জানান, গত সাত-আট বছর আগে রায়গঞ্জ উপজেলার ভুইয়াগাঁতী গ্রামের জলিম উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রাজ্জাকের সাথে সীমার বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। গতকাল সকালে স্বামী রাজ্জাক তাকে গলা টিপে হত্যা করে পালিয়ে যান।

ads

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.