মাশরাফি মর্তুজা ও সাকিব আল হাসান (ফাইল ফটো)
মাশরাফি মর্তুজা ও সাকিব আল হাসান (ফাইল ফটো)

কত বেতন বাড়বে মাশরাফি-সাকিবদের?

নয়া দিগন্ত অনলাইন

ক্রিকেটারদের বেতন বাড়ানোর চিন্তাভাবনা শুরু করেছে বিসিবি। আগামীকালের বোর্ড সভাতেও তা চূড়ান্ত হয়ে যেতে পারে। গত এপ্রিলে যে বেতন তাদের বেড়েছিল তা-ও ক্রিকেটারদের দাবির প্রেক্ষিতেই। এবারো যে তেমন চাপ নেই তা নয়। যদিও প্রকাশ পায়নি। কিন্তু ভেতরে ভেতরে ক্রিকেটাররা ওই দাবি ঠিকই করেছেন। এ জন্য তারা নিজেরা বসেছিলেনও। বিসিবি সেসব খবর রেখেই উদ্যোগী হয়েছে।

কাল বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ প্রধান আকরাম খান বলেন, ‘আমরা নীতিগতভাবে একমত যে বেতন বাড়ানো প্রয়োজন। তবে তা কত ভাগ সেটা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। শিগগিরই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হতে পারে।’

গত এপ্রিলেও খেলোয়াড়দের বেতন বেড়েছিল শতভাগ। এবারো সেটা অব্যাহত থাকবে কি না সেটা এক্ষুনি নিশ্চিত নয়। তবে এবার ক্রিকেটারদের থাকছে ব্যস্ত সব শিডিউল। সেখানে তাদের কাছেও প্রত্যাশা অনেক। সে দিকটা বিবেচনা করলে এবারো তাদের সন্তুষ্ট করার ব্যাপারটা রয়েছে। সে ক্ষেত্রে শতভাগ বেতন বাড়ানো হতে পারে এবারো।

এ দিকে বেতনভাতা নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটাররা কথা না বললেও তাদের যে পরিমাণ অর্থ দেয়া হয় সেভাবে কেউ আর দেয় না। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটাররাও কয় মাস আগে আন্দোলন করে বেতন বাড়িয়েছিলেন। বাংলাদেশের খেলোয়াড়রাও ওই পথে হাঁটতে পারেন। বিসিবি সম্ভবত সেটা হতে দেবে না। তা ছাড়া ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের (কোয়াব) শীর্ষ পর্যায়ের সব নেতাই বিসিবিতে কোনো না কোনোভাবে জড়িত। সাধারণত খেলোয়াড়দের এ সংগঠনই দেনদরবার করে থাকে। যেখানে নেতারাই বিসিবির প্রশাসনের ভূমিকায় সেখানে সাধারণ খেলোয়াড়রা আর কাকে নিয়ে আন্দোলনে যাবেন। এটা নিয়ে ভাবছেন সাধারণ ক্রিকেটাররাও।

 

মুম্বাইয়ের ড্রেসিংরুম উপভোগ করছেন মোস্তাফিজ

২০১৬ সালের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) টি-২০ ক্রিকেটে অভিষেক হয় বাংলাদেশের কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমানের। অভিষেকের পর সানরাইজার্স হায়দরাবাদে দু’বছর কাটানোর পর আইপিএলের চলতি আসরে নতুন দল পেয়েছেন ফিজ। এবারের আসরে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলছেন তিনি। প্রায় তিন সপ্তাহ হতে চলল, মুম্বাইয়ের সাথে আছেন এবং ইতোমধ্যে তিনটি ম্যাচ খেলেও ফেলেছেন। এই তিন সপ্তাহের অভিজ্ঞতা থেকে মুম্বাই ড্রেসিংরুম বেশ উপভোগ করছেন তিনি। গতকাল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও বার্তায় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশের এই বাঁহাতি পেসার।

ভিডিওতে মোস্তাফিজ বলেন, ‘এ বছর প্রথমবার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে খেলছি। এর আগের দু’বছর আমি হায়দরাবাদে খেলেছি। এটা নতুন ড্রেসিং রুম, এখানে সিনিয়র অনেক খেলোয়াড় আছে। আমার বয়সীও অনেকে আছে। টিম কম্বিনেশন অনেক ভালো। কোচরা যথেষ্ট সাহায্য করছেন। খেলোয়াড়রাও অনেক সাহায্য করছে।’

হায়দরাবাদে মোস্তাফিজের কোচ ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক খেলোয়াড় টম মুডি। এবার মুম্বাইয়ে তার প্রধান কোচ শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনে। সাথে আরো আছেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক পেসার শেন বন্ড। বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করছেন বন্ড। তাই জয়াবর্ধনে ও বন্ডের কাছে অনেক কিছুই শিখছেন বলে জানান ফিজ, ‘নতুন কোচের সাথে কাজ করলে সব সময় নতুন অনেক কিছু শেখা যায়। আমিও শেখার চেষ্টা করছি।’

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের পেস আক্রমণে ভরসার প্রতীক মোস্তাফিজ ও ভারতের জসপ্রিত বুমরাহ। প্রথম তিন ম্যাচ বিবেচনায় যখন তখন ব্রেক-থ্রু এনে দেয়ার পাশাপাশি ডেথ ওভারেও পারদর্শিতা দেখাচ্ছেন দু’জনে। বুমরাহর সাথে রসায়নটা বেশ ভালোই জমে উঠেছে তার। বুমরাহর সাথে বোলিং উপভোগ করছেন ফিজ, এমনটা অকপটে স্বীকার করলেন, ‘বুমরাহ এখন খুব ভালো বোলিং করছে। বিশেষ করে ডেথ ওভারে সে খুবই ভালো বোলিং করে। এখন দু’জন একসাথে বোলিং করতে পারছি, আমারও খুব ভালো লাগছে।’ মোস্তাফিজ-বুমরাহর দুর্দান্ত নৈপুণ্যের পরও টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচই হারে মুম্বাই। এখন পর্যন্ত ফিজ পাঁচটি ও বুমরাহ তিনটি উইকেট নিয়েছেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.