রাশিয়া-ট্রাম্পের প্রচারণা শিবিরের বিরুদ্ধে ডেমোক্র্যাটদের মামলা

২০১৬ সালে নির্বাচনে হস্তক্ষেপ

বিবিসি ও আলজাজিরা

যুক্তরাষ্ট্রে ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে ব্যাহত করতে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্র্যাটিক পার্টি রাশিয়ার সরকার, ট্রাম্পের প্রচারণা শিবির ও নথি ফাঁসকারী বিকল্পধারার সংবাদমাধ্যম উইকিলিকসের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। আদালতে দায়ের করা অভিযোগে বলা হয়েছে, নির্বাচনে জিততে ট্রাম্পের ‘প্রচারণা শিবির আনন্দের সাথে রাশিয়ার সহযোগিতা গ্রহণ করেছে’।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপ নিয়ে দেশটিতে তদন্ত চলছে। এর আগে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো জানায়, নির্বাচনের ফলাফল ট্রাম্পের পক্ষে নিয়ে আসতে রাশিয়া চেষ্টা চালিয়েছে। নির্বাচনে জয়ী হওয়া প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প রাশিয়ার সাথে আঁতাতের কথা অস্বীকার করেছেন। রাশিয়াও যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ অস্বীকার করেছে।
ম্যানহাটনের একটি আদালতে দায়ের করা মামলায় রুশ সরকার, ট্রাম্পের জামাতা জ্যারেড কুশনার, কৌশলবিদ রজার স্টোন ও সাবেক প্রচারণা চেয়ারম্যান পল ম্যানাফর্টসহ সিনিয়র উপদেষ্টা ও উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে আসামি করা হয়েছে। ডেমোক্র্যাটিক দলে চেয়ারম্যান টম পেরেজে এক বিবৃতিতে বলেছেন, হ্যাকিংয়ের ঘটনাটি ছিল নজিরবিহীন বিশ্বাসঘাতকতা এবং আমাদের গণতন্ত্রের ওপর সর্বাত্মক হামলা।
মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে মামলা থেকে বিদেশী দেশগুলোর দায়মুক্তি রয়েছে। তবে ডেমোক্র্যাটদের দাবি, রাশিয়া বেসরকারি সার্ভারে অনুপ্রবেশ করার কারণে রাশিয়ার জন্য এক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযোজ্য নয়। ট্রাম্পের প্রচারণা শিবির জানিয়েছে, এই মামলার কোনো ভিত্তি নেই এবং খারিজ হওয়া উচিত।
২০১৬ সালের মে মাসে ডেমোক্র্যাটি পার্টির সার্ভার হ্যাক করার খবর প্রকাশিত হয়। পরবর্তী দুই মাসে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো হ্যাকিংয়ের সাথে রুশ হ্যাকারদের জড়িত থাকার প্রমাণ পায়। ওই বছর জুলাই মাসে ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কনভেনশনের আগে উইকিলিকস ২০ হাজার ই-মেইল প্রকাশ করে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.