ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৩ মে ২০১৯

সাতরঙ

মায়ের জন্য উপহার

  রঙের ফিচার

নিপা আহমেদ

০৮ মে ২০১৮,মঙ্গলবার, ০০:০০


প্রিন্ট


সন্তানের প্রতি যেমন মায়ের অকৃত্রিম ভালোবাসা থাকে, তেমনি মায়ের প্রতি প্রতিক্ষণে সন্তানের অন্তরে পুঞ্জীভূত থাকে গভীর শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা। এই ভালোবাসার কখনো প্রকাশ ঘটে, কখনো ঘটে না। তাই মা দিবসে সব সঙ্কোচ ভুলে গিয়ে মায়ের প্রতি ভালোবাসার প্রকাশ ঘটাতে পারেন। এই দিনে অনেকেই ফুল, কার্ড, বই, গানের সিডি, শাড়ি, চকলেট বা অন্য বিশেষ কিছু উপহার হিসেবে বেছে নেয় মায়ের জন্য।
মা দিবসে মাকে একটু বিশ্রাম দিতে পারেন বাড়ির কাজ থেকে। বাড়ির কাজগুলো না হয় নিজেরাই করুন। মায়ের প্রিয় কোনো খাবার রান্না করতে পারেন। আর রান্না যদি করতে না পারেন, তাহলে মাকে নিয়ে কোনো রেস্টুরেন্টে খেয়ে আসতে পারেন। মায়ের জন্য কিনতে পারেন তার পছন্দের কোনো শাড়ি। চায়ের মগে মায়ের প্রতি নিজের ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার অভিব্যক্তি লিখে মাকে দিতে পারেন। মায়ের জন্য কিনে নয়, নিজেই তৈরি করতে পারেন একটি কার্ড। আপনার হাতের ছোঁয়ায় তৈরি এই সামান্য জিনিসই মায়ের কাছে অসাধারণ হয়ে উঠতে পারে। চাইলে মায়ের একটি ছবি ফ্রেম বাধাই করে দিতে পারেন। যারা বিশেষ কারণে এই দিনে মায়ের কাছে থাকতে পারেন না, তারা মাকে লিখতে পারেন চিঠি। আর ফোনকল, এসএমএস তো পাঠাবেনই। ইন্টারনেটে মাকে মজার মজার মা দিবসের ই-কার্ড পাঠাতে পারেন। সময় নিয়ে সারা দিন সপরিবারে কিংবা সব ভাইবোনসহ মাকে নিয়ে ঘুরে বেড়ান। মায়ের কাছের আত্মীয়স্বজন অথবা বন্ধুদের সাথে দেখা করার আয়োজন করতে পারেন।
যারা মা হারিয়েছেন, তাদের জন্যও দিনটি সমান গুরুত্বপূর্ণ। এই দিনে সন্তানেরা বিশেষভাবে মাকে স্মরণ করেন। মনে মনে মায়ের জন্য মঙ্গল কামনা করেন। কেউবা মনের অ্যালবামে মায়ের স্মৃতির পাতা উল্টে নীরবে চোখের জল ফেলেন। আর মাকে প্রার্থনায় স্মরণ করেন।
মাকে বিশেষভাবে একটা দিন খুশি করার জন্য মা দিবস উপলক্ষ মাত্র। তাই এ দিনটিতে সন্তানদের মায়ের সাথে সময় কাটানোই হবে থাকে মাকে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা প্রকাশের অন্যতম উপহার।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫