ডা: মাহাথির মোহাম্মদ প্রধানমন্ত্রী

১৯২৫ সালের ১০ জুলাই জন্ম নেয়া ডা: মাহাথির মোহাম্মদ আর কিছুদিন পরেই পা দেবেন ৯৩ বছরে। তৎকালীন ব্রিটিশ মালয়েশিয়ার কেদাহ প্রদেশে জন্ম নেয়া মাহাথির মোহাম্মদের দাদা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া থেকে দেশটিতে চাকরির সন্ধানে গিয়ে স্থায়ী হয়েছিলেন বলে জানা যায়। সিঙ্গাপুরের রাজা সপ্তম অ্যাডওয়ার্ড মেডিক্যাল কলেজ থেকে চিকিৎসাবিদ্যায় স্নাতক করেছেন। দেশে ফিরে কিছুদিন ডাক্তারিও করেছেন। তরুণ বয়স থেকেই রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের সাথে যুক্ত ছিলেন। ডাক্তারি পড়ার সময়কার সহপাঠী সিতি হাসমাহ মোহাম্মদ আলীকেই বিয়ে করেছেন পরবর্তীতে। ১৯৫৯ সালে কেদাহ প্রদেশের ইউনাইটেড মালয় ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন দলের প্রধান ছিলেন। তবে নির্বাচনে প্রার্থী হননি মাহাথির। ১৯৬৪ সালের নির্বাচনে প্রথমবারের মতো প্রাদেশিক পরিষদের এমপি মনোনীত হন। মালয় জনগোষ্ঠীর অধিকার নিয়ে সোচ্চার হওয়ার কারণে তাকে দল থেকে বহিষ্কারও হতে হয়েছে। ১৯৭৪-এ শিক্ষামন্ত্রী ও ১৯৮১ সালে প্রথমবারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন মাহাথির।
২০০৩ সালে ২২ বছরের শাসন ছেড়ে স্বেচ্ছায় অবসরে যান। তবে দলের সাথে যুক্ত ছিলেন। ২০১৫ সালে যোগ দেন বিরোধী দলের সাথে। বিরোধী জোট পাকাতান হারাপান মাহাথিরকে তাদের চেয়ারম্যান নিযুক্ত করে। আবার পাল্টে যায় মালয়েশিয়ার রাজনৈতিক দৃশ্যপট।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.