সিরিয়ার ইদলিবে সেনা ক্যাম্প করেছে তুরস্ক, সম্মতি রাশিয়া ও ইরানের
সিরিয়ার ইদলিবে সেনা ক্যাম্প করেছে তুরস্ক, সম্মতি রাশিয়া ও ইরানের

সিরিয়ার ইদলিবে সেনা ক্যাম্প করেছে তুরস্ক, সম্মতি রাশিয়া ও ইরানের

আলজাজিরা

রাশিয়া এবং ইরানের সাথে চুক্তির ভিত্তিতেই সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত ইদলিব প্রদেশে সেনা ক্যাম্প করেছে তুরস্ক। সহিংসতা ঠেকানোর উদ্দেশ্যেই এ ধরনের পরিকল্পনা করে রাশিয়া, তুরস্ক ও ইরান। 

তুর্কি সেনা ক্যাম্প করার বিষয়টিকে সিরিয়ার কিছু মানুষ সমর্থন করছেন। ইদলিব প্রদেশে সেনা মোতায়েন করেছে তুরস্ক। ইতোমধ্যেই তুর্কি সেনারা কার্যক্রম শুরু করেছে।

সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রকে আর হামলা করতে দেবে না রাশিয়া

আন্তর্জাতিক রাসায়নিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ সংস্থা ব ওপিসিডব্লিউতে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকসান্দার শুলগিন বলেছেন, মিথ্যা অজুহাত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে আর সিরিয়ায় হামলা করতে দেয়া হবে না।

হেগে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, দামেস্কের বিরুদ্ধে ওয়াশিংটনের সামরিক হামলার আশঙ্কা রয়েছে । সিরিয়ার বিরুদ্ধে আবারো হামলার হুমকি দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

তুরস্ককে ৩৫ লাখ সিরীয় শরণার্থীকে আশ্রয় দিতে হয়েছে : এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেপ এরদোগান বলেছেন, ঔপনিবেশিক শক্তিগুলো সিরিয়ার শরণার্থীদের আশ্রয় দিচ্ছে না। অথচ তুরস্ককে ৩৫ লাখ সিরীয় শরণার্থীকে আশ্রয় দিতে হয়েছে।

‘এরদোগান আর্জেস নিউ গ্রাউন্ডওয়ার্ক ফর ওয়ার্ল্ড পিস’ শীর্ষক প্রতিবেদনটিতে এরদোগানের বক্তব্য উদ্ধৃত করেছে আনাদোলু এজেন্সি।

এরদোগান সিরিয়াতে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের যৌথ ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সমালোচনা করে বলেছেন, তারা এসে বলল, ওখানে রাসায়নিক অস্ত্র আছে। আর তারপর হামলা চালালো। রাসায়নিক অস্ত্রের তুলনায় ঢের বেশি মানুষ মারা গেছে প্রচলিত অস্ত্রের কারণে।

এরদোগান প্রশ্ন করেন, ‘আমি জানতে চাই, আপনারা শুধু রাসায়নিক অস্ত্রের বিষয়ে কেন খোঁজ করেন? আপনারা প্রচলিত অস্ত্রের ব্যবহার খতিয়ে দেখছেন না কেন? রাসায়নিক অস্ত্রে যদি একজনের মৃত্যু হয়ে থাকে হয়ে থাকে, তাহলে প্রচলিত অস্ত্রের কারণে সেখানে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।’

এরদোগান বলেন, ইচ্ছামতো দেশগুলোর ওপরে চালানো বোমাবৃষ্টি এবং ব্যারেল বোমা নিক্ষেপ বন্ধ করে আসুন বিশ্ব শান্তি নিশ্চিতে একটি নতুন ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করি।

আনাদোলু এজেন্সি

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.