কুয়াকাটার সৈকতে ৫০ ফুটের তিমি
কুয়াকাটার সৈকতে ৫০ ফুটের তিমি

কুয়াকাটার সৈকতে ৫০ ফুটের তিমি

কুয়াকাটার সমুদ্র সৈকতে প্রায় ৫০ ফুট লম্বা ও ১৫ ফুট প্রশস্তের বিশাল আকৃতির একটি মৃত তিমি ভেসে ওঠেছে।

শুক্রবার রাতে ভরা জোয়ারের সময় সমুদ্র সৈকতের রিজার্ভ ফরেস্ট এলাকায় এটি ভেসে আসে বলে ধারণা এখানকার জেলেদের। শনিবার ভোরে আগত পর্যটক ও জেলেদের নজরে মৃত তিমিটি নজরে আসার পর মুহূর্তের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ সব জায়গায় খবরটি ছড়িয়ে পরে। স্থানীয় জেলেদের ধারণা গভীর সমুদ্রে মাছ শিকার যাওয়া কোনো ট্রলির সাথে আঘাত পেয়ে অন্তত ১০দিন আগে এ তিমি মাছটি মারা গেছে।

সামুদ্রিক জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণকারী গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়াইল্ডলাইফ কনজার্ভেশন সোসাইটির মেরিন এডুকেশন এন্ড ট্রেনিং কো-অর্ডিনেটর ফারহানা আখতার বলেন, এটি ব্রিডিস তিমি বা বেলিন তিমি। এরা সাধারণত ৪০ থেকে ৫০ ফুটের মতো লম্বা হয়ে থাকে। কালো থেকে ধূসর বর্ণের এই তিমির পেটের দিকটা অনেকটা হালকা ক্রিম রংয়ের। এদের দাঁত থাকে না, এর বদলে ছাঁকনির মতো অংশ থাকে। যার মাধ্যমে এরা পানি থেকে ছোট ছোট মাছ ও চিংড়িজাতীয় প্রাণী খেয়ে বাঁচে। এদের মাথাটি খাটো ও চওড়া এবং মাথায় তিনটি সমান্তরাল খাঁজ থাকে, যা দিয়ে সহজেই এদের আলাদা করা যায়। এরা সাধারণত ১২ বছর বয়স থেকে বাচ্চা জন্ম দিতে পারে। বাংলাদেশের পানি সীমানায় সোয়াচ-অব-নো গ্রাউন্ড এলাকায় এদেরকে সচরাচর দেখা যায়।

কলাপাড়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. কামরুল ইসলাম বলেন, মৃত তিমিটি এখন আর আমাদের দায়-দায়িত্বের মধ্যে নেই। কুয়াকাটা বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিবেন।
বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ও কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তানভীর রহমান বলেন, আমরা একটি মৃত তিমি ভেসে আসার খবর পেয়েছি। এটিকে পর্যটকদের জন্য কোনোভাবে সংরক্ষণ করা যায় কি-না সেটি দেখছি।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.