২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ফেসবুকের নতুন পরিকল্পনা, যা হতে পারে

ফেসবুকের নতুন পরিকল্পনা, যা হতে পারে - ছবি : সংগৃহীত

চার দিকে ছড়িয়ে পড়ছে ফেক নিউজ। আর সেটা রুখতেই আরও কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ২০১৪ সালে শুরু করা ‘‌ট্রেন্ডিং নিউজ’ বিভাগটি তুলে নিতে চলেছে তারা। ভবিষ্যতে সংবাদ পরিবেশনে নতুন মাত্রা যোগ করতেই এই ব্যবস্থা নিতে চলেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

তাদের মতে, এখন পর্যন্ত গড়ে মাত্র ১.‌৫ শতাংশ ক্লিক হয়েছে এই ‌ট্রেন্ডিং নিউজে এবং তাই সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। ফেসবুকের কর্মকর্তা অ্যালেক্স হার্দিম্যান একটি ব্লগে জানিয়েছেন, ‘‌গবেষণায় আমরা জেনেছি, সময় যত গড়াচ্ছে এই ট্রেন্ডিং নিউজটিকে অপ্রয়োজনীয় মনে করছেন অধিকাংশ ব্যবহারকারী। আগামী সপ্তাহ থেকে তাই এটি সরিয়ে নেয়া হবে। এমনকি থার্ড পার্টি এপিআইগুলোতেও এটি মিলবে না।’

এই ‌ ‌ট্রেন্ডিং নিউজ নিয়ে দু’‌বছর আগেই বিতর্কে জড়িয়েছিল ফেসবুক। এর অ্যালগরিদমে বিভিন্ন খবর নির্বাচন নিয়েই তৈরি হয় বিতর্ক। অ্যালগরিদম নিখুঁতভাবে সংবাদ বাছাই করতে পারে না বলে প্রায়ই ভুয়া খবর ট্রেন্ডিং হয়ে পড়ে এবং তা দ্রুত ছড়িয়েও যায়। এরপর এই নিয়ে বক্তব্যও রাখতে হয় ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গকেও।

তবে এই ট্রেন্ডিং নিউজের পরিবর্তে নতুন কি ফিচার আনবে ফেসবুকে? জানা গেছে, তারা ‘‌ব্রেকিং নিউজ লেবেল’‌, ‘‌টুডে ইন’‌ এবং ‘‌ফেসবুক ওয়াচ’‌ নামে তিনটি নতুন ফিচার আনবে। এর মধ্যে নিউজ ভিডিও–র জন্য ‘ফেসবুক ওয়াচ’–কে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হবে। এটির মাধ্যমে ইউটিউবের মতোই ভিডিও হাব তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে ফেসবুকের। এখানে লাইভ ভিডিও, কিংবা আলোচনার ভিডিও অথবা খবরের ভিডিও পোস্ট করা যাবে। এর পাশাপাশি কোনো নিউজ পোস্টে ব্রেকিং নিউজের লেবেলও লাগানো যাবে। অপরদিকে, ‘টুডে ইন’ নামে ফেসবুকে একটি নির্দিষ্ট সেকশন থাকবে। ওই সেকশনে স্থানীয় সংবাদ প্রকাশকেরা তাদের শহরের বিভিন্ন মানুষকে তথ্য ও খবরের সঙ্গে যুক্ত করতে পারবেন। পাশাপাশি স্থানীয় সংবাদও পাওয়া যাবে।‌‌

আরো পড়ুন :
অ্যাপলের বার্ষিক ডেভেলপার সম্মেলন শুরু
আহমেদ ইফতেখার
সোমবার শুরু হচ্ছে অ্যাপলের বার্ষিক ডেভেলপার সম্মেলন ডব্লিউডব্লিউডিসি-২০১৮। বার্ষিক ডেভেলপার সম্মেলনে বরাবরই নতুন পণ্যের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। একই সঙ্গে নতুন বছরে অ্যাপল যেসব পণ্যে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়, সে বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরা হয়।

গত বছর ডব্লিউডব্লিউডিসিতে ডিজিটাল অ্যাসিস্ট্যান্ট সিরি সমর্থিত স্মার্ট স্পিকার হোমপড, আইওএস, ওএসএক্স, অ্যাপল পে, ম্যাকওএস, অ্যাপল টিভি অ্যাপ, অ্যাপল ঘড়ির জন্য সফটওয়্যার হালনাগাদ, আইপ্যাড প্রোর নতুন সংস্করণ ও নতুন ম্যাকবুক প্রোর ঘোষণা দিয়েছিল অ্যাপল। তবে এবারের বার্ষিক ডেভেলপার সম্মেলনে নতুন পণ্যের চেয়ে সফটওয়্যার ও সার্ভিস খাতে বেশি গুরুত্ব দেবে প্রতিষ্ঠানটি।

ডব্লিউডব্লিউডিসিতে বরাবরই নতুন আইওএস ও ম্যাকওএস বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরে অ্যাপল। এবার আইপ্যাড ও আইফোনের জন্য অপারেটিং সিস্টেমে বড় ধরনের পরিবর্তনের ঘোষণা আসতে পারে। অ্যাপল অপারেটিং সিস্টেমের নামের ঐতিহ্য ধরে রাখলে আইপ্যাড ও আইওএসের নতুন সংস্করণের নাম হবে ‘আইওএস ১২’। আইফোনের দশকপূর্তি সংস্করণ আইফোন টেনের মাধ্যমে ‘জেসচার’ ফিচার এনেছে অ্যাপল, যা চলতি বছর সফটওয়্যার হালনাগাদের মাধ্যমে আরো উন্নত করা হতে পারে।

অ্যাপল আইফোনের নিয়ার ফিল্ড কমিউনিকেশনস (এনএফসি) প্রযুক্তির সহায়তায় আর্থিক লেনদেন সেবা অ্যাপল পে উন্মোচন করেছে। সেবাটিকে আরো উন্নত করতে আইওএস প্লাটফর্মের ডেভেলপারদের নিয়ন্ত্রণ বাড়ানোর ঘোষণা আসতে পারে। বিশ্বব্যাপী সেবাটি এরই মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ডব্লিউডব্লিউডিসিতে অ্যাপল ঘড়ি ও অ্যাপল টিভির নতুন অপারেটিং সিস্টেমের ঘোষণা আসতে পারে।

কয়েক বছর ধরে ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট সিরিতে গুরুত্ব দিচ্ছে অ্যাপল। ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট সমর্থিত অ্যামাজন অ্যালেক্সা ও গুগল হোমের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকতে বার্ষিক ডেভেলপার সম্মেলনে সিরি সমর্থিত হোমপড স্মার্ট স্পিকার বিষয়ে বড় ধরনের ঘোষণা দিতে পারে অ্যাপল।
ডব্লিউডব্লিউডিসিতে খুব কম সময়ই নতুন হার্ডওয়্যার উন্মোচন করে অ্যাপল। তবে গত বছর হোমপড স্মার্ট স্পিকার উন্মোচন করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। চলতি বছর ম্যাক কম্পিউটারের নতুন সংস্করণ উন্মোচন করা হতে পারে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের আইওএস প্লাটফর্মের ডেভেলপারদের নিয়ে মার্কিন প্রতিষ্ঠানটির এ সম্মেলন শেষ হবে ৮ জুন।


আরো সংবাদ