শরণখোলায় বাস মালিক সমিতির চেকপোষ্ট ভেঙ্গে দিয়েছে প্রশাসন

শরণখোলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা

বাগেরহাটের শরণখোলায় বাস মালিক সমিতির বিতর্কিত চেকপোষ্ট ভেঙ্গে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। বুধবার দুপুর ১২ টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস, শরণখোলা থানার অফিসার ইন চার্জ মোঃ কবিরুল ইসলাম চাল রায়েন্দা এলাকায় গিয়ে তথাকথিত ওই চেকপোষ্টটি ভেঙ্গে দেন।
এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘদিন ধরে শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ বাস-মিনিবাস মালিক সমিতি উপজেলার রায়েন্দা ইউনিয়নের চালরায়েন্দা এলাকায় আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে চেকপোষ্টের নামে একটি ছাপড়া ঘর তৈরী করেন। সেখানে মালিক সমিতির পোষা কয়েক ব্যাক্তি ওই সড়ক দিয়ে যাতায়াত করা ভ্যান, অটোভ্যান, অটোরিক্সা আটকে যাত্রীদের নামীয়ে দেয়। এসময় তারা স্কুল-কলেজগামী ছাত্রছাত্রী, নারী-শিশুদেরকে বিভিন্ন ভাবে লাঞ্চিত করে থাকেন।
রায়েন্দা পাইলট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুলতান আহম্মদ বিএসসি জানান, মঙ্গলবার সকালে তার মেয়েকে নিয়ে ওই সড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় বাস মালিক সমিতির কয়েক ব্যাক্তি চেকপোষ্টে নামিয়ে দেয়। এসময় প্রতিবাদ করলে তাদের লাঞ্চিত করা হয়। এর আগে কয়েকজন নারীকে লাঞ্চিত করার সময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রতিবাদ করায় তারা বাস বন্ধ করে দেয়। পরে প্রশাসনের উদ্যোগে তা নিরাসন করা হয়। এ ব্যাপারে সাউথখালী ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন জানান, বাস মাকিক সমিতির পোষা লোকদ্বারা তার ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে অনেক গন্যমান্য ব্যক্তিরাও রেহাই পায়নি।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস জানান, দীর্ঘদিন ধরে তথাকথিত ওই চেকপোষ্টের নামে একের পর এক যাত্রী হয়রানী ও লাঞ্চিত করার অভিযোগ আসতে থাকে। বিষয়টি বাস মালিক সমিতির নেতাদের জানানোর পরেও তা বন্ধ না হওয়ায় পুলিশ ও স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহান বাদলের সহযোগীতায় চেকপোষ্টটি উচ্ছেদ করা হয়েছে। জানতে চাইলে বাস ও মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি শামিম আহসান পলাশ জানান, এর আগের ইএনওর সাথে আলোচনা করে চেকপোষ্টটি বসানো হয়েছিল। যাত্রী লাঞ্চিত করার বিষয়টি সঠিক না। চেকপোষ্ট উচ্ছেদ করায় এ রুটে এখন বাস চলবে কিনা তা ঈদের পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.