২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

স্বামীকে নিয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে ৯০০ ফুট গভীর খাদে নারী

সেলফি
প্রতিকী ছবি - সংগৃহীত

আবারো সেলফির জন্য প্রাণ গেল। জাতীয় সেলফি দিবসেই প্রকাশ্যে এলো এই খবর। এ বার ঘটনা ভারতের মহারাষ্ট্রের। স্বামীকে নিয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে ৯০০ ফুট গভীর খাদে পড়ে গেলেন ৩৫ বছরের এক নারী।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঘটেছে এই মর্মান্তিক ঘটনা। পুনেতে এক আত্মীয়ের বাড়িতে ঘুরে রায়গড়ের মাথেরানে সপরিবার বেড়াতে গিয়েছিলেন দিল্লির পেইন্টিং কন্ট্রাক্টর ৩৮ বছর বয়সি রাম চৌহান। সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী সরিতা এবং তাদের তিন সন্তান। বড় মেয়ে ক্লাস এইটের ছাত্রী।

সন্ধ্যা সোয়া ছয়টার দিকে লুইসা পয়েন্টে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলছিলেন রাম ও সরিতা। পাশেই খেলা করছিল তাদের ছেলেমেয়েরা। সেই সময় চারিদিক ছিল কুয়াশায় ঢাকা। খুব জোরে হাওয়াও বইছিল। তখনই হঠাত্‍‌ পা পিছলে ৯০০ ফুট গভীর খাদে পড়ে যান সরিতা। শোকে বিহ্বল স্বামী সঙ্গে সঙ্গে পুলিশে খবর দেন। সহ্যাদ্রি ট্রেকার ও আদিবাসীদের নিয়ে ৮ ঘণ্টা তন্নতন্ন করে খুঁজে সরিতার দেহ উদ্ধার করে বিশাল পুলিশবাহিনী।

তার দেহের ময়নাতদন্ত করে ডাক্তার জানিয়েছেন, সরিতার মস্তিষ্ক, বাঁ পা ও ডান হাত ভেঙে চুরচুর হয়ে গিয়েছে। এছাড়াও তার শরীরে প্রচুর ক্ষত পাওয়া গেছে। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

আরো পড়ুন: 
রেললাইনে সেলফি তুলতে গিয়ে ২ কিশোরের মৃত্যু
বিবিসি, ১৮ জানুয়ারি ২০১৭
কিশোরদের একটি দল দিল্লির পূর্বে রেললাইনে দাঁড়িয়ে ট্রেনের সামনে ছবি তোলার চেষ্টা করার সময় দুই কিশোর ট্রেনে কাটা পড়ে। পুলিশ জানায়, ছবি তোলার সময় কিশোরদের মধ্যে দুইজন তাড়াতাড়ি সরে যেতে ব্যর্থ হয়। তারা ট্রেনটির নিচে চাপা পড়ে।

এই ঘটনাটি ঘটে গত শনিবার তবে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে খবরটি প্রকাশিত হয় গতকাল মঙ্গলবার।

সেলফির কারণে ভারতেই সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বলে গত বছরের একটি গবেষণায় জানা যায়।

কার্নেগি মেলোন বিশ্ববিদ্যালয় ও ইন্দ্রপ্রস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই গবেষণায় দেখা যায় ২০১৪-১৫ সালে বিশ্বজুড়ে ১২৭টি সেলফি সংক্রান্ত মৃত্যুর ৭৬টিই ঘটেছে ভারতে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকাকে একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ছবি তোলার সময় একটি ট্রেন এগিয়ে আসতে দেখে তারা সরে দাঁড়ায়। কিন্তু উল্টো দিক থেকে অপর একটি ট্রেন চলে আসে এবং তারা দুটি ট্রেনের মাঝখানে আটকে যায়। দুটি ট্রেনের যেকোনো একটির নিচে তারা চাপা পড়ে।

সেলফি তোলা নিষিদ্ধ
নয়া দিগন্ত ডেস্ক, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৬
ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাইয়ের ১৬টি এলাকায় সেলফি তোলা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেলফি তুলতে গিয়ে বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর ঘটনার পর এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রায় ১২৫ কোটি মানুষের দেশ ভারত স্মার্টফোনের একটি বড় বাজার।

ভূ-বৈচিত্র্যময় এ দেশটিতে সেলফি তোলার প্রবণতাও অনেক বেশি। এমনকি দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বিশ্বনেতাদের সঙ্গে সেলফি তুলে থাকেন। ২০১৪ সালে সেলফি তুলতে গিয়ে ভারতে মোট ১৯ জন মারা যায়। চলতি মাসের শুরুতে নাশিক শহরে ঝর্ণার কাছে দাঁড়িয়ে সেলফি তোলার সময় এক ছাত্র পানিতে ডুবে মারা যায়। গত মাসে মুম্বাইয়ে পর্যটকদের কাছে জনপ্রিয় ব্যান্ডস্টান্ড দুর্গের সামনে ১৮ বছরের এক তরুণী সেলফি তোলার সময় সাগরে ডুবে মারা যায়। মুম্বাই পুলিশ সম্প্রতি সেখানকার ১৬টি স্থানে সেলফি তোলায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। সাগরের তীর ঘেঁষা যেসব পর্যটন এলাকায় কোনো রেলিং নেই ওই সব এলাকাই মূলত এর আওতাভুক্ত।

মুম্বাই পুলিশের কর্মকর্তা ধনঞ্জয় কুলকার্নি জানিয়েছেন, নিষিদ্ধ ঘোষিত এসব এলাকায় সেলফি তুললে ১২ শ’ রুপি জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি পুলিশ বিভিন্ন স্থানে সচেতনতামূলক প্রচারণাও চালাবে। ইন্টারনেট।


আরো সংবাদ