১৯ জুলাই ২০১৮

ফিরে যাচ্ছেন মোনালিসা

ফিরে যাচ্ছেন মোনালিসা - ছবি : সংগৃহীত

কিছু দিনের জন্য সুদূর আমেরিকা থেকে প্রিয় জন্মভূমি বাংলাদেশে এসেছিলেন জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী মোনালিসা। দেশে এসে পরিবার আর মিডিয়া পরিবারের সঙ্গেই সময় কাটিয়ে ছোট পর্দায় বেশ কিছু ভালো ভালো কাজ করে আজ শনিবার রাতের ফ্লাইটে ফিরে যাচ্ছেন আমেরিকায়। তবে ফিরে যাওয়ার আগে আগামী ঈদের জন্য মোনালিসা ঈদের পর তিনটি নাটকের কাজ করেছেন। নাটক তিনটি হচ্ছে সুমন আনোয়ারের ‘যখন সবকিছু থেমে যায়’, সঞ্জয় সমাদ্দারের ‘এক যে ছিল মা’ এবং শরীফুলের ‘লুকিয়ে ভালোবাসবো তারে’।

তিনটি নাটকে তার সহশিল্পী হিসেবে কাজ করেছেন আফরান নিশো, ইরফান সাজ্জাদ ও সজল। প্রিয় জন্মভূমি বাংলাদেশ ছেড়ে যেতে মোনালিসার মন না চাইলেও যেতে হচ্ছে তাকে। তবে মোনালিসা জানান , শিগগিরই তিনি দেশে আসবেন আবার। তবে সেটা কবে নিশ্চিত করেননি তিনি। মোনালিসা বলেন, ‘এবার যাওয়ার বেলায় সাথে কিছু মধুর মধুর স্মৃতি নিয়ে যাচ্ছি। জীবন সত্যিই অদ্ভুত। অনেক মানুষই স্মৃতি নিয়ে জীবন পার করে দেয়।

আমিও দেশে কাটানো মধুর স্মৃতির সময়গুলো মনে করে করে আমেরিকায় কাটিয়ে দেই। এবার দেশে এসে বেশ তরুণ কয়েকজন মেধাবী নির্মাতার নির্দেশনায় কাজ করেছি। তাদের মধ্যে ভালো কাজ করার প্রবল আগ্রহ দেখেছি আমি। অনেক ভালো ভালো নাটকে টেলিফিল্মে কাজ করেছি। আবার ‘পোড়ামন টু’ সিনেমার দর্শকপ্রিয়তা দেখেও মুগ্ধ হয়েছি। সিয়াম আর পূজার জন্য শুভ কামনা। আমি সিনেমা নিয়ে আরো আশাবাদী। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন আবার এসে আপনাদের জন্য ভালো ভালো কাজ করে যেতে পারি।’

এবারের ঈদে মোনালিসা সবচেয়ে বেশি সাড়া পেয়েছেন মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের নির্দেশনায় ‘অনুভবে’ নাটকে অভিনয়ের জন্য। পাশাপাশি আশফাক নিপুণের ‘হয়তো তোমার কাছেই যাবো’ নাটকের জন্যও দারুণ সাড়া পেয়েছেন। দু’টি নাটকে তার বিপরীতে ছিলেন আফরান নিশো ও জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। উল্লেখ্য, গত ১২ এপ্রিল মোনালিসা ঢাকায় আসেন। আমেরিকায় বিগত দুই বছর যাবৎ তিনি ১৯৬৯ সালে প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিখ্যাত কসমেটিকস ও বিউটি প্রোডাক্ট সরবরাহকারী বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ‘সেফোরা’র বিউটি অ্যাডভাইজার হিসেবে কর্মরত আছেন। পাশাপাশি সেখানে তিনি বাংলাদেশের বিশেষ বিশেষ দিবসে সেখানকার বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলে বিশেষ অনুষ্ঠানেও অংশগ্রহণ করেন।


আরো পড়ুন :
একসঙ্গে প্রথমবার আমিন পপি
অভি মঈনুদ্দীন
আগামী ৮ জুলাই রাজধানীর আগারগাঁওয়ের ‘বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রতে অনুষ্ঠিত হবে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬’। আর এই পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পর্বে প্রথমবার একসঙ্গে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠানে পারফর্ম করবেন চিত্রনায়ক আমিন খান ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। এর আগেও আমিন খান পপি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠানে পারফর্ম করেছেন , তবে এবারই প্রথম দু’জন একসঙ্গে পারফর্ম করতে যাচ্ছেন। এরই মধ্যে আমিন খান ও পপি রাজধানীর কারওরান বাজারের বিএফডিসিতে মহড়ায় অংশ নিয়েছেন। প্রায় প্রতিদিনই মহড়া চলছে। আমিন খান বলেন, ‘আমি আর পপি বেশ কিছু দর্শকপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করেছি। কিন্তু স্টেজ এ আমরা একসঙ্গে পারফর্ম করিনি কখনো।

এবারই প্রথম তাও আবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে পারফর্ম করতে যাচ্ছি। বিষয়টি একজন চলচ্চিত্র শিল্পী হিসেবে অনেক সম্মানের বলেই আমি মনেকরি। কারণ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে আমাদের পারফরম্যান্স উপভোগ করবেন। আমি আর পপি দুই-তিনটি গানে একসঙ্গে পারফরম করব।

যেমন তুমি যেখানে আমি সেখানে, চুল ধইরোনা খোপা খুলে যাবে, তুমি আমার জীবন এই ধরনের গানে পারফরম করব আমরা।’ পপি বলেন, ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে একজন চলচ্চিত্র শিল্পী হিসেবে পারফরম করাটাকে আমি সবসময়ই বেশ গুরুত্ব দিয়ে আসছি। এর আগেও আমি পারফরম করেছি। আমিন ভাইয়ের সঙ্গে সিনেমার পর্দায় আমাকে তার নায়িকা হিসেবে দেখেছেন। আবার আমরা দু’জন সাদেক সিদ্দিকীর নির্দেশনায় সাহসী যোদ্ধা নামে একটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ও করছি এখন। যে কারণে সবমিলিয়ে এই মুহূর্তে তার আর আমার একসঙ্গে পারফরম করার বিষয়টি আমার কাছে ভালো লেগেছে। ধন্যবাদ আয়োজকদের, যারা আমাদের দু’জনকে এবারের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে পারফম করার সুযোগ করে দিয়েছেন।

আশা করছি এবারের সাংস্কৃতিক পর্ব অনেক বেশি উপভোগ্য হবে।’ আমিন খান ও পপি প্রথম জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করেন দীলিপ সোম পরিচালিত ‘তোমার জন্য ভালোবাসা’। এরপর তারা দু’জন বিভিন্ন সময়ে জুটি হয়ে এবং সহশিল্পী হিসেবে ‘মা আমার বেহেস্ত’, ‘লুটপাট’, ‘হীলা চুনি পান্না’, ‘মন দিওয়ানা’, ‘বিশ্ব বাটপার’, ‘দুই ভাইয়ের যুদ্ধ’, ‘ক্ষ্যাপা বাসু’, ‘কসাই’সহ আরো বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।


আরো সংবাদ