১৫ আগস্ট ২০১৮

বাচ্চা কাঁদায় ‘ব্লাডি ইন্ডিয়ান’ বলে নামিয়ে দেয়া হলো বিমান থেকে

বাচ্চা কাঁদায় ‘ব্লাডি ইন্ডিয়ান’ বলে নামিয়ে দেয়া হলো বিমান থেকে - ছবি : সংগৃহীত

তিন বছরের এক শিশুর কান্নায় বিরক্ত হয়ে বিমান থেকে দুই ভারতীয় পরিবারকে নামিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠল ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের বিরুদ্ধে। শুধু নামিয়ে দেয়াই নয়, তাদের প্রতি জাতিবিদ্বেষমূলক মন্তব্যও করা হয় বলে অভিযোগ। সম্প্রতি লন্ডন থেকে বার্লিন যাওয়ার একটি বিমানে এই ঘটনাটি ঘটে। ওই ব্রিটিশ বিমান সংস্থায় অভিযোগ জানানোর পাশাপাশি ভারতের বেসরকারি বিমান পরিবহণমন্ত্রী সুরেশ প্রভুকে চিঠি দিয়ে ঘটনার বিবরণ জানিয়েছেন ওই শিশুর বাবা। তিনি পরিবহণ ও জাতীয় সড়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তা।

শিশুটির বাবা চিঠিতে লিখেছেন, কিছু দিন আগে তিনি লন্ডন থেকে বার্লিন যাওয়ার একটি বিমানে উঠেছিলেন। সঙ্গে স্ত্রী এবং তিন বছরের শিশু ছিল। বিমানে ওঠার পর থেকেই বাচ্চা কাঁদতে শুরু করে। তার মা কান্না থামানোর অনেক চেষ্টা করলেও কোনো ফল হয়নি। বিমান টেকঅফ করার সময়ও কান্না না বন্ধ হলে ক্রিউ মেম্বারদের কয়েকজন তাদের কাছে ছুটে আসেন এবং বাচ্চাকে বকাবকি করতে শুরু করেন। এতে সে আরও ভয় পেয়ে যায় এবং আরও বেশি জোরে কাঁদতে শুরু করে। তাঁদের পিছনের আসনে আরো একটি ভারতীয় পরিবার ছিল। তারাও বাচ্চাকে চুপ করানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু তাতেও কোনো ফল হয়নি।

তার অভিযোগ, বিমানের ওই কর্মীরা তাদের উদ্দেশে চিৎকার করে জাতিবিদ্বেষমূলক মন্তব্য ছুড়তে থাকেন। পিছনের সারিতে বসা যে পরিবার বাচ্চার কান্না থামাতে সাহায্য করছিল তাদের লক্ষ্য করেও খারাপ মন্তব্য করেন তারা। এমনকি কান্না বন্ধ না করলে জানলা দিয়ে বাচ্চাটিকে ছুড়ে ফেলার হুমকিও দেন। ওই বিমানকর্মীরা তাদের কোনো কথাই শুনছিলেন না।

তিনি জানান, এর পর বিমানকর্মীরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেন এবং বিমানকে টার্মিনালে দাঁড় করান। কয়েকজন নিরাপত্তারক্ষী এসে তাদের বোর্ডিং পাস কেড়ে নেন ও ওই দুই ভারতীয় পরিবারকেই বিমান থেকে নামিয়ে দেয় বলে অভিযোগ।

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের মুখপাত্র বলেছেন, ‘‘আমরা কোনোরকম বৈষম্য বরদাস্ত করি না। খুবই গুরুত্বের সঙ্গে এই অভিযোগ বিবেচনা করা হচ্ছে।’’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

আরো পড়ুন :

গাড়ির পর বিমান চালানোর অনুমতি পাচ্ছে সৌদি নারীরা 
গালফ নিউজ

আরও এক ঐতিহাসিক সংস্কারের পথে সৌদি আরব। এবার সৌদি মহিলাদের বিমান চালানোর ক্ষেত্রে ছাড়পত্র মিলবে দ্রুত। সেই লক্ষ্যেই কাজ শুরু হয়েছে।

দুবাই থেকে প্রকাশিত গালফ নিউজ জানাচ্ছে এই খবর। রিপোর্টে বলা হয়েছে, শতাধিক মহিলা বিমান চালানোর জন্য প্রশিক্ষণ নিতে আগ্রহী হয়েছেন। তারা আবেদনপত্র পূরণ করেছেন।


আরব সরকারের এই ভূমিকায় তীব্র সাড়া পড়েছে মধ্যপ্রাচ্য। গালফ নিউজ জানিয়েছে, আগামী সেপ্টেম্বর থেকে প্রশিক্ষণ শুরু হবে।অক্সফোর্ড এভিয়েশন অ্যাকাডেমি নামে প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে আরব মহিলাদের প্লেন চালানোর শিক্ষা দেওয়া হবে৷ সংস্থার পরিচালক জানিয়েছেন, তিন বছরের কোর্স শেষ করার পর সৌদি মহিলারা বিমান চালানো ছাড়পত্র পাবেন। এক মাস আগেই আরব মহিলাদের গাড়ি চালানোর নিষেধাজ্ঞা উঠে গিয়েছে। তারপরেই এল বিমান চালানোর জন্য সুযোগ।

সৌদি আরবের সংস্কারমূলক কাজ কর্মে গতি এসেছে দেশটির ভবিষ্যৎ বাদশা তথা বর্তমান যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমানের কয়েকটি সিদ্ধান্ত। কড়া ইসলামিক আইনে এই দেশের মহিলারা বহু ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়ছেন। সেই নিয়মের পরিবর্তন ঘটানোর কাজ শুরু হয়েছে। সৌদি আরবের এই ভূমিকায় পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলিতে পড়েছে সাড়া।


আরো সংবাদ

ঢাবি ক্যাম্পাস থেকে ছাত্রীকে তুলে নিয়ে গেল ডিবি শিক্ষার্থীদের ওপর নির্যাতন বন্ধ করুন : বাম গণতান্ত্রিক জোট ছাত্র আন্দোলনে উসকানির অভিযোগে আশুলিয়ায় ১২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা আগামীতে নির্বাচনের পর কার্যকর ও প্রাণবন্ত সংসদ পাওয়ার প্রত্যাশা আগারগাঁওয়ে ট্রাকচাপায় সাইকেল আরোহী নিহত উগ্রবাদী সন্দেহে বনানী কবরস্থান এলাকায় কিশোর আটক খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালন ও কারামুক্তির দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে আলোচনা-দোয়া মাহফিল ২৩টি সেতু ও রেলওয়ে ওভারপাস উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ঢাবিতে শোক দিবসের সভা শেষে ছাত্রলীগের মারামারি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়ন সমন্বয় মন্ত্রণালয়ের দাবি ন্যাডপোর বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন অব্যাহত

সকল