২০ অক্টোবর ২০১৮

আত্মহত্যা প্রতিরোধে মন্ত্রী নিয়োগ ব্রিটেনে

আত্মহত্যা প্রতিরোধে মন্ত্রী নিয়োগ ব্রিটেনে - ছবি : সংগৃহীত

আত্মহত্যা প্রতিরোধে প্রথমবারের মতো মন্ত্রী নিয়োগ দিয়েছে ব্রিটেন সরকার। বিশ্বে এটাই প্রথম আত্মহত্যা প্রতিরোধে মন্ত্রী নিয়োগের ঘটনা। প্রতিবছর সাড়ে ৪ হাজার মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় ব্রিটেনে। বিপুল সংখ্যক মানুষের এই মরনের হাত থেকে ঠেকাতে মন্ত্রী নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে ব্রিটেন সরকার। প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জ্যাকি প্রাইসকে নতুন এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন।

বিশ্বের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে আলোচনা করতে লন্ডনে জড়ো হয়েছেন বিশ্বের ৫০টি দেশের প্রতিনিধি। এমন সময় দেশটির পক্ষ থেকে আত্মহত্যা প্রতিরোধে মন্ত্রী নিয়োগের ঘোষণা এলো। মন্ত্রী নিয়োগের পাশাপাশি বিনামূল্যে মানসিক চিকিৎসা সেবা দিতে অর্থও বরাদ্দ করেছে থেরেসা মে’র সরকার। মানসিক স্বাস্থ্য সেবা দেয়া অলাভজনক এক সংগঠনকে ১৮ মিলিয়ন পাউন্ড অর্থ বরাদ্দ দিয়েছে সরকার, বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ২০ কোটি টাকার সমান। আগামী চার বছর ওই অর্থে বিনামূল্যে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা দেবে ওই সংগঠন।

২০১০ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে কম বয়সীদের মধ্যে আত্মহত্যার হার বেড়েছে ৬৭ ভাগ। নতুন ঘোষণায় থেরেসা মে’র সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, মানসিক স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতে নতুন টিম গঠন করে প্রতিটি স্কুলে পাঠানো হবে। শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং তাদের মানসিক অবস্থার উন্নয়নে পরামর্শ দেবে তারা।

প্রধান মন্ত্রী থেরেসা মে বলেছেন, ‘যে বাস্তবতা নীরবে মানুষকে ভোগান্তির মধ্যে রাখে আর আত্মহত্যার প্ররোচণা দেয়, আমরা সেই বাস্তবতার অবসান ঘটাতে চাই।'


আরো সংবাদ