২৩ অক্টোবর ২০১৮

তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে কষ্ট হবে না : অ্যাটর্নি জেনারেল

-

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, যাবজ্জীবন সাজা পাওয়া তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে কষ্ট হবে না। মৃত্যুদণ্ড হলে বিদেশে পলিটিক্যাল অ্যাসাইলাম (রাজনৈতিক আশ্রয়) দেয়া হয়। তবে তারেক রহমানের তো যাবজ্জীবন সাজা হয়েছে। তাই তাকে ফিরিয়ে আনতে কষ্ট হবে না। এ ছাড়া আন্তর্জাতিক আইন কোনো অপরাধীকে আশ্রয় দেয়া সমর্থন করে না।
গতকাল বৃহস্পতিবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।
২১ আগস্ট রায় প্রসঙ্গে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, রায়ে যাদের মৃত্যুদণ্ড হয়েছে তাদের আদালত থেকে বিনা খরচে রায়ের কপি দেয়া হয়। আর তারা যদি আপিল করেন তবে সেটা ডেথ রেফারেন্স হিসেবে হাইকোর্টে আসবে। সে েেত্র রাষ্ট্রপ যত দ্রুত সম্ভব শুনানির জন্য পদপে নেবে। তবে এটাতে পেপারবুক তৈরির বিষয় রয়েছে, সেগুলো আদালতের বিষয়। মামলার আপিল শুনানিতে আমাদের পদপেগুলো আমরা নেব।
তিনি বলেন, এ মামলায় তারেক রহমানকে যদি নাটেরগুরু বলা হয়ে থাকে, তবে সেটা রায় পর্যালোচনা করে দেখব। রায় পড়ে যদি দেখি তারও মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত ছিল, তবে তার দণ্ড বাড়াতে রাষ্ট্রপ থেকে আপিল করব; কিন্তু সবটাই নির্ভর করবে রায়টি পড়ার পর।
মাহবুবে আলম বলেন, এই মামলায় একজন পাকিস্তানি নাগরিকেরও সাজা হয়েছে। এখানে আমরা অনুমান করছি বাংলাদেশের তি করতে, নেতৃত্বশূন্য করতে পাকিস্তান এখনো নিবৃত হয়নি। পাকিস্তান এরই মধ্যে সন্ত্রাসবাদে জড়িয়ে পড়েছে। আমরা সে েেত্র জেএমবিসহ জঙ্গিদের দমন করতে সফল হয়েছি। সাজাপ্রাপ্ত ওই পাকিস্তানি নাগরিকের বিষয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে। দেশটিকে অস্থিতিশীল করতে পাকিস্তানের ইন্ধন থাকতে পারে।
তিনি আরো বলেন, জুলফিকার আলী ভুট্টো নিজে খুন করেননি; কিন্তু খুন করিয়েছেন, সে জন্যও তার ফাঁসি হয়েছে। তাই আমারও মনে হয় অন্যদের মতো তারেকের ফাঁসি হওয়া উচিত ছিল।


আরো সংবাদ

মইনুল হোসেনকে ‘রাজনৈতিকভাবে’ নিয়েছে আওয়ামী লীগ, বিবিসির জিজ্ঞাসা নিখোঁজের ২৪ দিন পর কিশোরের লাশ উদ্ধার মইনুলের গ্রেফতার কিভাবে দেখছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বুধবার সিলেটের জনসভা থেকে কী বার্তা দেবে ঐক্যফ্রন্ট কলড্রপের ক্ষতিপূরণ ও অনাকাঙ্খিত ম্যাসেজ নিয়ন্ত্রণে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ মইনুল হোসেনকে গ্রেফতার করা জরুরি ছিল : কাদের  ড. কামাল সাজাপ্রাপ্ত কয়েদিদের রাজনীতিতে পুনর্বাসন করতে চান: তথ্যমন্ত্রী রানুর চোখের রহস্যে মিসির আলী মিসিং অভিবাসী শিশুর জন্য তুর্কি পুলিশ কর্মকর্তার কান্না ধর্ষণ চেষ্টায় ইউপি সদস্যের ১০ বছর কারাদণ্ড ঢাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

সকল