২৩ অক্টোবর ২০১৮

চেজের দৃঢ়তায় লড়াইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

রোস্টন চেজ অপরাজিত আছেন ৯৮ রানে - ছবি : এএফপি

হায়দরাবাদে স্বাগতিক ভারতের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনে প্রাথমিক বিপর্যয় কাটিয়ে ম্যাচে ফিরতে শুরু করেছে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১১৩ রানের মধ্যে ৫ উইকেট পরে যাওয়ার পরও দলটি প্রথম দিন শেষ করেছেন ৭ উইকেটে ২৯৫ রান নিয়ে। সপ্তম উইকেটে রোস্টন চেজ আর অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের ১০৪ রানের জুটিই মূলত লড়াইয়ে ফিরিয়েছে ক্যারিবীয়দের। যদিও দিনের খেলার ৯০তম ওভারে আউট হয়ে গেছেন জেসন হোল্ডার।

শুক্রবার টেস্টের প্রথম দিন সকালে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ভারতীয় স্পিনার ঘুর্নিতে পথ হারায় ক্যারিবীয় টপ অর্ডার। দলীয় ৩২ রানে ওপেনার কাইরন পাওয়েলকে ফিরিয়ে ‍উইকেট সূচনা করেন ডানহাতি অফস্পিনার রবিচন্দন অশ্বিন। ২২ রান করা পাওয়েল ক্যাচ দেন রবীন্দ্র জাদেজাকে। এরপর দলীয় ৫২ রানে আরেক ওপেনার ক্রেইগ ব্রাথওয়েটকে তুলে নেন কূলদ্বীপ যাদব। ১৪ রান করা ব্রাথওয়েট পড়েছেন লেগ বিফোরের ফাঁদে।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে সফরকারীরা। তিনটি উইকেট তুলে নিয়েছেন বামহাতি লেগ স্পিনার কুলদ্বীপ যাদব। টপ অর্ডার ও মিডল অর্ডারে কোন জুটিই গড়ে ওঠেনি। এক পর্যায়ে ১১৩ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বসে হোল্ডারের দল। তবে এরপর রোস্টন চেজের সাথে শেন ডরিখের ৬৯ রানের জুটিতে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

দলীয় ১৮২ রানে ৩০ রান করা ডরিখকে তুলে নিয়ে সেই জুটি ভাঙেন পেসার উমেশ যাদব। এরপর ক্রিজে আসা অধিনায়ক হোল্ডারকে নিয়ে আবার প্রতিরোধ গড়েন চেজ। এই জুটিতে ২৮৬ পর্যন্ত পৌছে যায় ক্যারিবীয়রা। তবে দিনের খেলার ৯০তম ওভারের শেষ বলে যাবদকে উইকেটের পিছনে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেছেন আবারো সেই উমেশ যাদব। ৯২ বলে ৫২ রানের সময়োপযোগী একটি ইনিংস খেলেছেন হোল্ডার। প্রথম দিন খেলা হয়েছে ৯৫ ওভার। রোস্টন চেজ অপরাজিত আছেন ব্যক্তিগত ৯৮ রানে, তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন লেগ স্পিনার দেবেন্দ্র বিষু। চেজের ১৭৪ বলের ইনিংসে আছে ৭টি চার ও একটি ছক্কা।

ভারতীয় বোলারদের মধ্যে বামহাতি লেগস্পিনার কুলদ্বীপ যাদব ও পেসার উমেশ যাদব ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন। সিরিজের প্রথম টেস্টে জিতে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে ভারত।

আরো পড়ুন: শেন ওয়ার্নকে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন সেলিম মালিক!
অস্ট্রেলিয়ার সাবেক লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্নকে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক সেলিম মালিক- এমনটাই দাবি করেছেন ওয়ার্ন তার আত্মজীবনীমূলক বইয়ে।

শেন ওয়ার্নের আত্মজীবনীমূলক বই ‘নো স্পিন’ প্রকাশিত হবে চলতি মাসে। যে বইতে তিনি লিখেছেন ১৯৯৪ সালের পাকিস্তান সফরে তাকে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন সেলিম মালিক।


শেন ওয়ার্নের বইটি চলতি মাসেই মুক্তি পাবে বাজারে। তিনি এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন বইটির প্রচার-প্রচারণায়। এরই অংশ হিসেবে এক ভারতীয় টিভি চ্যানেলে জানিয়েছেন বিষয়টি। নিজ মুখেই বলেছেন সেলিম মালিকের কাছ থেকে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার কথা।

নিজের বইয়ের একটি উদ্ধৃতি উল্লেখ করে ওয়ার্ন বলেন, ‘সেলিম মালিক আমাকে ২ লাখ ডলার সেধেছিল। তারপর বললো এই টাকাটা আধঘণ্টার মধ্যেই আমার রুমে থাকবে যদি আমি ম্যাচে সব বল অফস্টাম্পের বাইরে করি এবং ম্যাচটা ড্র হয়ে যায়। ম্যাচের ফলাফল নিয়ন্ত্রণ করাটাই ছিলো তার উদ্দেশ্য।’

সেলিম মালিকের এ ঘটনার স্মৃতিচারণ করে ওয়ার্ন আরও জানান যে একসময় শ্রীলঙ্কাতে গিয়েও এমন প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আমি শ্রীলঙ্কার একবার এক ক্যাসিনোতে ৫০০০ ডলার হেরেছিলাম। তখন মার্ক ওয়াহর এক বন্ধু এসে আমাকে বললো যে এই নাও তোমার ৫০০০ ডলার। আমি তখন সেটি ফিরিয়ে দিয়ে বলি যে দরকার নেই; কিন্তু সে তখন বললো এর মধ্যে কোনো প্রস্তাব নেই বা কোন কিছু করতে হবে না। তবে ঘটনা এমন কিছু নয়।’

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সাথে জড়িত থাকার দায়ে ক্যারিয়ারের শেষ পর্যায়ে গিয়ে আজীবনের জন্য ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক সেলিম মালিক। যদিও ২০০৮ সালে তার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় আদালত। যার ফলে এখন কোচিংয়ের দিকে মনোযোগী রয়েছেন তিনি।


আরো সংবাদ

মেয়েদের দেহে স্পর্শ নিয়ে ট্রাম্পের মন্তব্য, এরপর যা হলো ব্রেক্সিট নিয়ে ফের গণভোটের দাবিতে লন্ডনে লাখো মানুষের বিক্ষোভ কিভাবে ফাঁস হয় ফোনালাপ? আইন যা বলেছে কারাগারের আমদানী সেলে ব্যারিস্টার মইনুলের প্রথম রাত কেশবপুরে সরকারদলীয় নেতাদের অবৈধ পশুহাট মইনুল হোসেনকে ‘রাজনৈতিকভাবে’ নিয়েছে আওয়ামী লীগ, বিবিসির জিজ্ঞাসা নিখোঁজের ২৪ দিন পর কিশোরের লাশ উদ্ধার মইনুলের গ্রেফতার কিভাবে দেখছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বুধবার সিলেটের জনসভা থেকে কী বার্তা দেবে ঐক্যফ্রন্ট কলড্রপের ক্ষতিপূরণ ও অনাকাঙ্খিত ম্যাসেজ নিয়ন্ত্রণে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ মইনুল হোসেনকে গ্রেফতার করা জরুরি ছিল : কাদের 

সকল