১৮ নভেম্বর ২০১৮

অধিকারের নিবন্ধন বাতিল করল ইসি

অধিকারের নিবন্ধন বাতিল করল ইসি - ছবি : সংগৃহীত

নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত পর্যবেক্ষক সংস্থা অধিকারের নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার দু'দিন আগে ৬ নভেম্বর সংস্থাটির নিবন্ধন বাতিল করা হয়। নিবন্ধন বাতিলের কারণ হিসেবে ইসি বলছে, এনজিও ব্যুরোর নিবন্ধন না থাকা এবং রাষ্ট্র ও শৃঙ্খলাবিরোধী কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে সংস্থাটির বিরুদ্ধে। গত মঙ্গলবার বিষয়টি অবহিত করে অধিকার-এর সভাপতি সি আর আবরার বরাবর চিঠি দিয়েছে ইসি।

ইসির যুগ্ম সচিব (জনসংযোগ) এস এম আসাদুজ্জামান সাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, নির্বাচন কমিশনে স্থানীয় পর্যবেক্ষক সংস্থা হিসেবে নিবন্ধন পাওয়ার পূর্বশর্ত হলো সংস্থাটিকে সংবিধিবদ্ধ কোনো প্রতিষ্ঠান অথবা এনজিও ব্যুরোতে নিবন্ধিত হতে হবে। অধিকার (নিবন্ধন নং-১৪) এর এনজিও বিষয়ক বিষয়ক ব্যুরোতে নিবন্ধনের মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় এবং নির্বাচন পর্যবেক্ষণ নীতিমালা-২০১৭ এর ৬.২ উপধারা অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন নিবন্ধিত স্থানীয় পর্যবেক্ষক সংস্থা হিসেবে প্রতিষ্ঠানটির নিবন্ধন বাতিল করা হলো।

নিবন্ধন বাতিলের বিষয়ে অধিকার-এর পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সংস্থাটির একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, জাতীয় নির্বাচনের আগে হঠাৎ করে একটি পর্যবেক্ষক সংস্থার নিবন্ধন বাতিল হওয়া হতাশাজনক। এনজিও বিষয়ক ব্যুরো অধিকারের নিবন্ধন নবায়ন করেনি, বাতিলও করেনি।

গত জুন মাসে সকল শর্ত পূরণ ও কাগজপত্র সরবরাহ করে ইসি থেকে পর্যবেক্ষকের নিবন্ধন নবায়ন করেছে অধিকার। নীতিমালা অনুযায়ী নিবন্ধন বাতিলের আগে ইসি থেকে অভিযোগের বিষয়ে নোটিশ আসার কথা। ওই নোটিশ পাওয়ার ৫ দিনের মধ্যে সংস্থাটি শুনানির জন্য আবেদন করতে পারবে। শুনানির পর অভিযোগের বিষয়ে গৃহীত সিদ্ধান্ত ৭ দিনের মধ্যে ইসি ওই সংস্থাটিকে অবহিত করবে। কিন্তু ইসি কোনো প্রকার শুনানির সুযোগ না দিয়ে সরাসরি অধিকার-এর নিবন্ধন বাতিল করেছে।
নির্বাচন পর্যবেক্ষণ নীতিমালা-২০১৭ এর ৬.২ উপধারায় বলা আছে, নিবন্ধিত কোনো সংস্থার বিরুদ্ধে রাষ্ট্র বা শৃঙ্খলাবিরোধী কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মতামত বা প্রতিবেদনের আলোকে ওই সংস্থার নিবন্ধন বাতিল করা হবে।

অধিকার-এর ওই কর্মকর্তা জানান, সাম্প্রতিক সময়ে সিটি নির্বাচনের প্রকৃত অনিয়মের চিত্র তুলে ধরেছিল অধিকার। এতে নির্বাচন কমিশন সংস্থাটির ওপর অসন্তুষ্ট হয়েছে। যে কারণে বিনা নোটিশে তাদের নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে।

এবিষয়ে নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব (জনসংযোগ) এস এম আসাদুজ্জামান বলেন, অধিকার এনজিও বিষয়ক ব্যুরোতে নিবন্ধিত নয়। এছাড়া তাদের কাগজপত্রে অনেক ঘাটতি রয়েছে। তাই তাদের নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে গত জুন মাসে নিবন্ধিত ১১৯টি পর্যবেক্ষক সংস্থাকে নিবন্ধন দেয় ইসি। তালিকায় অধিকার-এর নিবন্ধন নম্বর ১৪। ২০২৩ সালের মে মাস পর্যন্ত সংস্থাটির নিবন্ধনের মেয়াদ ছিল।

 


আরো সংবাদ

নির্বাচনী প্রার্থীদের নদী রার অঙ্গীকার মঙ্গলকর : তথ্যমন্ত্রী ধর্মহীন রাজনৈতিক দলের সাথে জোট করে কল্যাণরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয় : সৈয়দ রেজাউল করীম লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচন করবে জাতীয় পার্টি : মহাসচিব রাষ্ট্রপতি হওয়ার স্বপ্নে বিভোর ড. কামাল : হানিফ নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি হয়নি : বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি বিচারিক ক্ষমতা ছাড়া সেনাবাহিনী মোতায়েনের সফলতা নিয়ে সংশয় মহাজোটে ভিড়ছে ভুঁইফোড় দল লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করবে নির্বাচন কমিশন : ওবায়দুল কাদের আ’লীগ-বিএনপি উভয় দলেই একাধিক প্রার্থী আওয়ামী লীগ-বিএনপিতে কোন্দল জামায়াত নীরবে চালাচ্ছে তৎপরতা বিভিন্ন স্থানে বিরোধী নেতাকর্মী গ্রেফতার অব্যাহত

সকল