১৮ নভেম্বর ২০১৮

সতীনকে হত্যার দায়ে মা-মেয়ে আটক

-

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় মোবাইল ফোনে কথা কাটাকাটির জের ধরে সতীন কর্তৃক অপর সতীনকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহতের নাম মনোয়ারা বেগম। তিনি উপজেলার পাইকরাজ গ্রামের আব্দুল মতিনের দ্বিতীয় স্ত্রী। গত বুধবার রাতে আব্দুল মতিনের বসত বাড়িতে হত্যাকান্ডের এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বৃহস্পতিবার দুপুরে নিহতের সতীন আব্দুল মতিনের প্রথম স্ত্রী সাহেনা বেগম ও তার মেয়ে সুলতানা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আব্দুল মতিন তার দুই স্ত্রী সাহেনা ও মনোয়ারাকে নিয়ে একই বাড়িতে বসবাস করতেন। গত বুধবার রাতে মোবাইল ফোনে কথাকাটাকাটির জের ধরে দুই সতীন সাহেনা ও মনোয়ারার মাঝে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। এরই এক পর্যায়ে সাহেনা বেগম ও তার মেয়ে সুলতানা মিলে মনোয়ারার গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এ সময় প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে মনোয়ারাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল জলিল মনোয়ারা বেগমকে হত্যায় জড়িত সন্দেহে সতীন সাহেনা ও তার মেয়ে সুলতানাকে আটকের বিষয়ে নিশ্চিত করে

তিনি বলেন, নিহতের মরদেহ এখনও হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি। মামলা দায়ের করা হলে পরবর্তি আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ

নির্বাচনী প্রার্থীদের নদী রার অঙ্গীকার মঙ্গলকর : তথ্যমন্ত্রী ধর্মহীন রাজনৈতিক দলের সাথে জোট করে কল্যাণরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয় : সৈয়দ রেজাউল করীম লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচন করবে জাতীয় পার্টি : মহাসচিব রাষ্ট্রপতি হওয়ার স্বপ্নে বিভোর ড. কামাল : হানিফ নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি হয়নি : বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি বিচারিক ক্ষমতা ছাড়া সেনাবাহিনী মোতায়েনের সফলতা নিয়ে সংশয় মহাজোটে ভিড়ছে ভুঁইফোড় দল লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করবে নির্বাচন কমিশন : ওবায়দুল কাদের আ’লীগ-বিএনপি উভয় দলেই একাধিক প্রার্থী আওয়ামী লীগ-বিএনপিতে কোন্দল জামায়াত নীরবে চালাচ্ছে তৎপরতা বিভিন্ন স্থানে বিরোধী নেতাকর্মী গ্রেফতার অব্যাহত

সকল