২৬ জুন ২০১৯

বিষপানে আত্মহত্যা, পুলিশকে তথ্য হার্ট অ্যাটাকের!

বিষপানে আত্মহত্যা, পুলিশকে তথ্য হার্ট অ্যাটাকের! - প্রতীকী ছবি

দুই সন্তানের জননী রহিমা বেগম (৪৪)। সোমবার রাতে তিনি বিষপান করে আত্মহত্যা করেন। তিনি মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়নের আনারপুরা গ্রামের আবুল হোসেন বাবুর্চীর মেয়ে। এদিকে নিহত রহিমা বেগম বিষপান করে আত্মহত্যা করলেও পুলিশ তার মৃত্যুর কারণ হিসেবে হার্ট অ্যাটাকের তথ্য দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রহিমা বেগম মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়নের আনারপুরা গ্রামের প্রয়াত সুনু মিয়ার ছেলে মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস সাত্তার মিয়ার সাবেক স্ত্রী। সম্প্রতি সুমন মিয়া নামক এক ব্যক্তিকে বিয়ে করে রহিমা বেগম ভাড়া বাড়িতে বসবাস করছিলেন। কি কারণে রহিমা বিষপানে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন তা জানা না গেলেও তার পরিবারের সদস্যরা গজারিয়া থানা পুলিশের কাছে হার্ট অ্যাটাকে রহিমার মৃত্যু হয়েছে মর্মে লিখিত মুচলেকা দিয়ে সোমবার রাতেই তড়িঘড়ি করে লাশ নিয়ে দাফন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে গজারিয়া থানার এসআই মোঃ ওয়ালীউর রহমান জানান, রহিমার মৃত্যুর কারণ হিসেবে নিহতের বাবার বাড়ির পরিবারের সদস্যরা পুলিশকে হার্ট অ্যাটাকের কথা জানিয়েছে। সরজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেও আত্মহত্যার কোনো ‘আলামত’ পাওয়া যায়নি বলেও দাবি করেন তিনি।

এ ব্যাপারে আনারপুরা গ্রামের বাসিন্দা ভবেরচর ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ সিরাজুল ইসলাম জানান, রহিমা বেগম আতহত্যা করেছেন বলেই শুনেছি। এমনকি গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে রহিমাকে নিয়ে যাওয়ার পর দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে আননোন পয়জনিংয়ে (অজানা বিষক্রিয়ায়) আক্রান্ত লিখে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। স্বারক নং- ৮৩৪/২ সকাল ৯টা ২০ ঘটিকা।


আরো সংবাদ