১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পাকুন্দিয়ায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

-

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় ছোট ভাই শামসুল মুসলিমিন মতির (৬০) কিরিচাঘাতে বড় ভাই আলী আসগর মুকুল (৬৫) খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ বুধবার ভোর ৬টার দিকে উপজেলার জাঙালিয়া ইউনিয়নের চরটেকী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তারা দুজনেই চরটেকী গ্রামের মৃত হারুন অর রশীদের ছেলে।

নিহত আলী আসগর মুকুল পরিবার নিয়ে ঢাকায় থাকতেন।

এলাকাবাসী ঘাতক মতিকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চরটেকী গ্রামের আলী আসগর মুকুলসহ ছয় ভাইয়ের সাথে তাদের ছোট ভাই শামসুল মুসলিমিন মতির দীর্ঘদিন ধরে পৈত্রিক জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। এনিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিক দরবার শালিস হয়। কিন্তু কোনো দরবার শালিসই মানেনি ছোট ভাই মতি। সর্বশেষ গত রমজান মাসে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে এনিয়ে গ্রামীণ দরবার শালিসে একটি আপস-মীমাংসা হয়। কিন্তু মতি গ্রামীণ দরবারের ওই আপস-মীমাংসাটিও অমান্য করেন। ফলে তাদের মধ্যে বিরোধ থেকেই যায়।

গত সোমবার মুকুল ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মুকুলের সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে ছোট ভাই মতির কথা কাটাকাটি হয়। আজ বুধবার ভোরে ঘুম থেকে উঠে বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে ব্রাশ দিয়ে দাঁত মাজছিলেন মুকুল। এসময় মতি এসে কিরিচ দিয়ে মুকুলকে উপর্যুপরি কয়েকটি আঘাত করেন। মুকুলের ডাকচিৎকারে এলাকাবাসী এসে ঘটনাস্থল থেকে মতিকে আটক করে।

মুর্মূর্ষ মুকুলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পাকুন্দিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘাতক মতিকে কিরিচসহ আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো: মফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘাতক ছোট ভাই মতিকে আটক করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরো সংবাদ