২১ অক্টোবর ২০১৯

ফরিদপুরে ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূর মৃত্যু

-

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ (ফমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মঞ্জু রানী (৫৫) নামের এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে তিনি মারা যান।

এ নিয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ পর্যন্ত শিশুসহ ১১ জন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হলো।

মঞ্জু রানীর বাড়ী রাজবাড়ীর সদর উপজেলার বসন্তপুর গ্রামে। তিনি ওই এলাকার হরিপদ কুমারের স্ত্রী। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তাকে ফমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরিবারের লোকজন জানান, মঞ্জু রানী গত সোমবার সকালে জ্বরে আক্তান্ত হয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসে ভর্তি হন। এরপর থেকে তার অবস্থা অপরিবর্তিত ছিলো। ওই দিন রাতেই তিনি মার যান।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. কামদা প্রসাদ সাহা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গত সোমবার সকালে জ্বরে আক্তান্ত মঞ্জু রানীকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এনে ভর্তি করেন পরিবারের লোকজন। পরে রাত ১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এদিকে, সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় ফরিদপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে নতুন ভর্তি হয়েছেন ১৫ জন। বর্তমানে জেলার হাসপাতালগুলোতে মোট চিকিৎসা নিচ্ছেন ৬৫ জন। গত ২০ জুলাই থেকে এ পর্যন্ত ৩০০৯ জন চিকিৎসা নিয়েছেন। এরমধ্যে ছুটি নিয়ে বাড়িতে ফিরে গেছেন ২৪৫৬ জন রোগী। আর ঢাকায় পাঠানো হয়েছে ৪৭৭ জনকে। জেলার সরকারি হিসাবে এ পর্যন্ত শিশুসহ ১১ জনের ডেঙ্গু জ্বরে মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো।


আরো সংবাদ