১৮ নভেম্বর ২০১৯

এবার পুত্রবধূকে হুমকি সাবেক এমপি হিরুর

বরগুনা-২ আসনের সাবেক সাংসদ গোলাম সারওয়ার হিরুর দায়ের করা মামলায় বড় ছেলে গোলাম মোর্শেদ রানাকে জেলহাজতে পাঠিয়ে তার স্ত্রী বেবীকে ও জেলহাজতে পাঠানোর হুমকি দিয়েছে।

হিরু তার বড় ছেলের স্ত্রী বেবীকে হুমকি দেয়ার একটি অডিও কলরেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। কলরেকর্ডে শোনা গেছে- বড় ছেলে রানার স্ত্রী বেবী শশুর হিরুকে বাড়িতে আসার জন্য বললে হিরু উত্তেজিত হয়ে আকর্ষিক বকাঝকা শুরু করে অসৌজন্যমূলক আচরণ। এক পর্যায় হিরু তার পুত্রবধূকে তার বাবার বাড়ি ময়মানসিংহে চলে যেতে বলে অশ্লীল মন্তব্য করে এবং ছেলের সাথে জেলে চালান দিবে বলে জানান এবং বলেন, নতুন স্বামী যোগার করে নিতে বলেন।

এদিকে ভাইরাল হওয়া কল রেকর্ড শুনে স্থানীয় লোকজন মিশ্র প্রতিক্রিয়া শুরু করেছে। তারা বলছেন মিথ্যা মামলা দিয়ে নিজের ছেলেকে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। এখন আবার ছেলের বৌকেও জেল হাজতের হুমকি দিচ্ছে এটা একজন জনপ্রতিনিধিরা কথা হতে পারে না। সে মানুষের সমস্যা সমাধান করে এখন তার এই শালিশ করবে কে।

অপরদিকে রানার স্ত্রী বেবী জানান, আমি শঙ্কার মধ্যে আছি। শশুরের পক্ষ থেকে আমাকে নানাভাবে হুমকি ধামকির দেয়া হচ্ছে। পাথরঘাটায় আমার কোনো আত্মীয়-স্বজন নেই। আমার স্বামীকেও জেলহাজতে পাঠিয়ে আমাকেও হুমকি দিচ্ছে। আমি এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেছি।

এ বিষয়ে বিআরডিবি পাথরঘাটার সাবেক চেয়ারম্যান ইমাম হোসেন বাবুল জানান, সমাজের প্রথম শ্রেণীর ব্যক্তি ও সাবেক সাংসদ হিসেবে ছেলে ও ছেলে বউয়ের সাথে এমন আচরণ কাম্য নয়।

তিনি আরো বলেন, হিরু একজন সামাজিক লোক হয়ে অসামাজিক আচারণ করে সমাজে নোংরামি করছেন। আর সাধারণ মানুষকে গালিগালাজ করার অভিযোগ হিরুর বিরুদ্ধে এর আগেও অভিযোগ রয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে গোলাম সারওয়ার হিরু বিষযটি অস্বীকার করে সাংবাদিকদের জানান, অডিও কল রেকর্ডটি আমার না। আমি তাকে কখনো দেখিওনি কখনো কথাও হয়নি। তবে আমার সাথে রানার সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে থানায় মামলা রয়েছে।

পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন জানান, হুমকির বিষয়ে বেবী থানায় এসে মৌখিক অভিযোগ দিলে তাকে লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, বরগুনা-২ আসনের সাবেক সংসদ গোলাম সারোয়ার হিরুর সাথে পারিবারিক কলহের জের থাকায় গত বুধবার সকালে পাথরঘাটা থানায় মামলা দায়ের করায় তারই বড় ছেলে গোলাম মোর্শেদ রানাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে বুধবার বিকালে আদালতে সোপর্দ করলে পাথরঘাটার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জামিন নামুঞ্জর করে তাকে জেলহাজতে পাঠান।


আরো সংবাদ