১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

নটআউট পেঁয়াজ : চুরির শঙ্কায় রাতে ক্ষেত পাহারায় কৃষকরা

-

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গেছে। গত তিন দিনের ব্যবধানে তিন দফায় বৃদ্ধি পেয়ে বর্তমানে প্রতি কেজি দেশী পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৬০ টাকায়। গত বুধবারও প্রতি কেজি দেশী পেঁয়াজের দাম ছিলো ১০০ টাকা। তিন দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম প্রায় তিনগুণ বৃদ্দি পেয়েছে। যা ক্রেতাদের সাধারণের নাগালের বাইরে চলে গেছে ।

এ দিকে পেঁয়াজ ক্ষেতের চুরি ঠেকাতে কৃষকেরা  অপরিপক্ক পোঁয়াজ ক্ষেত রাত-দিন পাহারা বসিয়েও সামাল দিতে পারছে না বলে ভুক্তভোগী কৃষকেরা জানান। শনিবার (১৬ নভেম্বর) সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বেশিরভাগ বিক্রেতার নিকট পেঁয়াজের সঙ্কট রয়েছে। এসময় হোসেনপুর বাজারের মুদি দোকানি আওয়াল মিয়া হাজীপুর বাজারে খুচরা ব্যবসায়ী মো. জামাল মিয়া, গোবিন্দপুর বাজারে লাল মিয়াসহ অনেকেই জানান, ভারতীয় পেঁয়াজেরজের আমদানি বন্ধ থাকায় পাইকারি বাজারে দেশী পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণ বেড়ে যাওয়া তাদের তাদের চড়া  দামে বিক্রি করা ছাড়া কোন উপায় নেই। ক্রেতা নজরুল ইসলাম, মজিবুর, নবী হোসেনসহ  অনেকেই আক্ষেপ করে বলেন, পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে যথাযথ কর্তৃপক্ষের নজরদারী থাকলে ক্রেতাদের এমন দুর্ভোগ পোহাতে হতো না। তাই পেঁয়াজের  বাজার দাম নিয়ন্ত্রণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন তারা।

উপজেলার বিভিন্ন বাজারগুলোতে দেশি পেঁয়াজ আকার ও প্রকারভেদে পাইকারি বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ২৩০-২৪০ টাকা। আর খুচরা বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ২৫০-২৬০ টাকা। এতে ক্রেতা সাধারণের নাভিশ্বাস উঠেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ মহিউদ্দিন জানান, পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে আজ খেকেই বিভিন্ন বাজার মনিটরিং ও  পেঁয়াজের গুদামে অভিযান পরিচালনাসহ বিধি মোতাবেক কার্যকরী উদ্যোগ প্রহণের আশ্বাস দেন।


আরো সংবাদ