১১ ডিসেম্বর ২০১৯

শিয়াল-কুকুরে খাওয়া মুনিয়ার অর্ধগলিত লাশ মিলল গজারি বনে

মুনিয়া আক্তার (৫) - ছবি : সংহীত

গাজীপুরে নিখোঁজের ছয় দিন পর শনিবার দুপুরে শিয়াল কুকুরে খাওয়া এক শিশুর খণ্ড বিখণ্ড অর্ধগলিত লাশ গজারি বন থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ওই শিশুর নাম মুনিয়া আক্তার (৫)। তিনি গাজীপুর সদর উপজেলার মনিপুর মধ্যপাড়া এলাকার মোঃ মুনজুরুল ইসলামের মেয়ে।

জয়দেবপুর থানার ওসি মোঃ জাবেদুল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, গত ১০ নবেম্বর বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে শিশু মুনিয়া নিখোঁজ হয়। স্বজনরা সম্ভাব্য বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পায়নি। পরদিন এ ব্যাপারে জয়দেবপুর থানায় সাধারন ডায়রি করে শিশুটির পরিবার।

এদিকে শনিবার সকালে মনিপুর এলাকায় বন বিভাগের গজারি বনে দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন শিশুর মাথা দেখতে পায় স্থানীয়রা। ওই মাথার সূত্র ধরে খোঁজ করে তারা অল্প দূরে শিশুটির অর্ধগলিত লাশের হাত-পা ও দেহ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুপুরে নিহতের ছিন্নবিচ্ছিন্ন লাশের টুকরো উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

ওসি আরো জানান, ধারণা করা হচ্ছে খুনিরা গলা কেটে শিশুটিকে হত্যার পর লাশ গজারি বনের ভেতর ফেলে পালিয়ে গেছে। পরে শেয়াল-কুকুরে কামড়ে খেয়ে নিহতের লাশটির দেহ-থেকে হাত-পা বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে। শনিবার পুলিশ শিশুটির খণ্ড বিখণ্ড অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরো সংবাদ