১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

অধিকার

-

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম কণাকে ভাঙলেও শব্দ হয়
কিন্তু আমাদের কান তা শোনে না।
শোনে না অনেক কিছু
অভিযোগের ঝোলাও পাহাড় আকার ধারণ করে
তবুও শোনে না কেউ নাগরিক ক্রন্দন!
আমার কবিতা কোনো সময়কে ধারণ করে না।
যা শনাক্ত করেছে তা কেবলই বলির পাঁঠা
ঘৃণার ঘোড়দৌড় বিপন্ন মানব জীবন
স্তূপকৃত হয় অযথা রাজাদের ভাষণে,
চৈতন্যের গান খিলান এঁটে বসে থাকে
মরুভূর বালিয়াড়ির অবচেতন বুকে।
তবু আমি বলতে চাই
ভালোভাবে বাঁচার অধিকার আমাদেরও আছে
নতুবা আমার অধিকারযুক্ত উচ্চারণটুকু
সশব্দে বাতাসে ভাসার অধিকার!


আরো সংবাদ

জার্মানিতে গুপ্তচরবৃত্তি : ভারতীয় দম্পতির শাস্তি ভারতে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অব্যাহত দাম কমলেও পেঁয়াজ নিয়ে অস্বস্তি কমেনি ভারতের নতুন নাগরিকত্ব আইন বৈষম্যমূলক : জাতিসঙ্ঘ শ্রমিকদের বেতন ন্যূনতম ১৫ হাজার টাকা নির্ধারনসহ ৪ দফা দাবি গাজীপুরে ডায়রিয়ার রোগীর সংখ্যা বাড়ছে খালেদা জিয়া ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত : লেবারপার্টি সোনারগাঁওয়ে বিজয় র্যালি ও আলোচনা অনুষ্ঠিত রোহিঙ্গা গণহত্যা নিয়ে আইসিজের শুনানিতে বাংলাদেশের সন্তোষ রাজস্ব বোর্ডের নির্দেশনা ৫ মাসেও বাস্তবায়ন হয়নি বেনাপোল চেকপোস্টে আইটি খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে বাংলাদেশী-ব্রিটিশদের প্রতি আহ্বান হাইকমিশনারের

সকল