১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মদিনায় হাজীদের বহন করা বাস উল্টে ১ বাংলাদেশীর মৃত্যু

মদিনায় হাজীদের বহন করা বাস উল্টে ১ বাংলাদেশীর মৃত্যু - ছবি : সংগৃহীত

পবিত্র মদিনা নগরীতে হাজীদের বহন করা বাস দুর্ঘনায় একজন হাজী নিহত হয়েছেন। একই ঘটনায় আহত হয়েছে আরো ২৪ জন হাজী। নিহত হাজীর নাম মো: নুরুল ইসলাম (৭১)। তার বাড়ি ফেনি সদরের লস্করহাটে। বাসটি হজযাত্রীদের নিয়ে শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত সাড়ে নয়টায় মক্কা থেকে মদিনায় যাচ্ছিল।

এই মুহুর্তে হজে থাকা হজ এজেন্সীজ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) এর সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম বাস দুর্ঘটনার বিষয়ে জানিয়েছেন, যারা আহত হয়েছেন তারা সকলেই এখন শংকামুক্ত। তিনি জানান, বাসের চাকা ফেটে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছিল। শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত আনুমানিক সাড়ে ৯ টায় মদিনা থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে ওয়াজুল ফারা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মদিনার একটি সূত্র জানায়, পবিত্র হজ পালন শেষে মক্কা থেকে মদিনায় যাওয়ার পথে বাংলাদেশি হাজিদের বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত হয়। তার নাম মো: নুরুল ইসলাম(৭১)। আন্তর্জাতিক রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির এর এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন যে ব্যক্তি নিহত হয়েছেন তার নামই মো: নুরুল ইসলাম বলে মনে করা হচ্ছে। তিনি ফেনীর সদররের লস্করহাটের বাসিন্দা।

উল্লেখ্য এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত আনুমানিক সাড়ে ৯ টায় মদিনা থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে ওয়াজুল ফারা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। সূত্র আরো জানায়, হজ পালনের পর মদিনায় মহানবীর (সা.) কবর জিয়ারতে যাচ্ছিলেন ওই বাংলাদেশিরা। বাসের চাকা ফেটে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। বাসটিতে মোট ৩৫ জন হাজি ছিলেন।
আহতদের ৪ জনকে ওয়াজুল ফারা হাসপাতাল, ১০ জনকে কিং ফাহাদ হাসপাতাল, ৮ জনকে মিকাত হাসপাতালে, দুজনকে ওহুদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তাদের মধ্যে কিং ফাহাদ হাসপাতাল থেকে ৩ জনকে, মিকাত হাসপাতাল থেকে ৪ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রিলিজ দেয়া হয়। আহতদের মধ্যে ১ জনের হাতে ভাংগা কাঁচ ঢুকে যাওয়ায় তার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। আহত অন্যান্যরা আশংকামুক্ত বলে জানা গেছে। ৩৫ হজযাত্রীগণের সকলেই স্কাই এয়ার ট্রাভেলস, হজ লাইসেন্স নং ১২০৫ এর মাধ্যমে হজে এসেছেন।


আরো সংবাদ