২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

অস্ট্রেলিয়া চায় রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফিরে যাক

অস্ট্রেলিয়া চায় রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফিরে যাক - ছবি : সংগৃহীত

সফররত অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মরিস পেইন বলেছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে তার দেশ বাংলাদেশকে দৃঢ়ভাবে সমর্থন করে যাবে। কারণ তারা চায় বাস্ত্যুচ্যুত রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফিরে যাক। বৃহস্পতিবার রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে এক বৈঠকে অজি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এ বিষয়টির (রোহিঙ্গা) সাথে আমরা থাকবো।’ বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে মানবিকতার পরিচয় দেয়ায় বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা করে মরিস পেইন শেখ হাসিনাকে জানান, এক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়া তাদের সহযোগিতা আরও বাড়াবে।

নারীর ক্ষমতায়নে শেখ হাসিনার প্রশংসা করে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর মতো তিনি নিজেও ক্রিকেটের ভক্ত। মরিস পেইন জানান, তার দেশ চায় অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল সূচি অনুযায়ী বাংলাদেশে সফর করুক।

অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে শেখ হাসিনা জানান, মানবিক কারণে বাংলাদেশ ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছে। শান্তিপূর্ণ প্রত্যাবাসানের জন্য বাংলাদেশ মিয়ানমারের সাথে চুক্তিও করেছে। কিন্তু মিয়ানমারের অনিচ্ছার কারণে সে চুক্তি বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না। রোহিঙ্গা ইস্যু এখন বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় বোঝা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ সময়ের মধ্যে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে প্রায় এক লাখ শিশুর জন্ম হয়েছে।

বৈঠকে অন্যদের মধ্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন, মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এবং পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক উপস্থিত ছিলেন। সূত্র : ইউএনবি


আরো সংবাদ

সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলা চলতে বাধা নেই টেকসই উন্নয়নে প্রজনন স্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে হবে ছাত্রলীগের পর যুবলীগ ধরেছি: প্রধানমন্ত্রী স্কুল ছাত্রকে খ্রিষ্টান ধর্মে দীক্ষিতের প্রতিবাদে আলেম-উলামাদের মানববন্ধন তিউনিসিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট বেন আলীর ইন্তেকাল বিএনপির সাথে ব্রিটিশ কনজারভেটিভ পার্টির বৈঠক গ্রাহকদের কাছ থেকে ইচ্ছেমতো তথ্য সংগ্রহ করছে ব্যাংকগুলো আদালতে বোরকা পরিহিত মিন্নির ছবি তোলা ব্যক্তি কে? কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটেই হলো ছাত্রদলের নেতৃত্ব নির্বাচন উন্নয়নের নামে মানুষকে বিপথগামী করা হয়েছে : ড. মঈন খান ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নেমে যাওয়ায় সময় এসেছে বৃষ্টির পানি ব্যবহারের

সকল